Alexa
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

অফিস সহকারী থেকে মাদ্রাসার সহকারী সুপার

নিয়োগ পেতে ‘জালিয়াতি’

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ১২:৪৬

নিয়োগ পেতে ‘জালিয়াতি’ মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় একটি মাদ্রাসার অফিস সহকারী থেকে অন্য মাদ্রাসার সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট পদে নিয়োগ পেতে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের বাসিন্দা কাজী মো. রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন টিলাগাঁও ইউনিয়নের বিজলী গ্রামের মো. মশাহিদ আলী ও পৃথিমপাশা ইউনিয়নের মো. ফরিদ উদ্দিন আহমদ। এ অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তাঁরা।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কাজী মো. রফিকুল ইসলাম ২০০২ সালে গনকিয়া দাখিল মাদ্রাসায় সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট পদে নিয়োগ পান। কিন্তু মাদ্রাসাটি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় তিনি সেখানে যোগদান করেননি। ২০০৩ সালে স্থানীয় রবিরবাজার দারুচ্ছুন্নাহ ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় অফিস সহকারী হিসেবে যোগদান করেন তিনি। সেই পদে ১৯ বছরের বেশি সময় ধরে তিনি দায়িত্বে আছেন।

এ ছাড়া ২০১২ সাল থেকে তিনি পৃথিমপাশা ইউনিয়নের তালাক ও বিয়ে নিবন্ধক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। একটি মাদ্রাসায় ইনডেক্সধারী অফিস সহকারীর দায়িত্বে থাকা সত্ত্বেও পুরোনো নিয়োগপত্র দেখিয়ে অন্য আরেকটি মাদ্রাসায় নিয়োগ নিয়েছেন তিনি। গত জুন মাসে গনকিয়া দাখিল মাদ্রাসা এমপিওভুক্ত হয়। পরে তিনি আগের সেই নিয়োগপত্র দেখিয়ে গত ১ আগস্ট গনকিয়া দাখিল মাদ্রাসায় সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট হিসেবে যোগদান করেন। তবে যোগদানের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কাজী রফিকুল ইসলাম।

জানতে চাইলে কাজী রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সদ্য এমপিওভুক্ত হওয়ায় গনকিয়া মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ আমাকে ওই পদে আবেদন করতে বলে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে আমার কাগজপত্র তাঁদের কাছে জমা দিয়েছি। তবে এখনো যোগদান করিনি। দারুচ্ছুন্নাহ মাদ্রাসা থেকে অফিস সহকারী পদ থেকে অব্যাহতিপত্র জমা দিয়েছি।’

রবিরবাজার দারুচ্ছুন্নাহ ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট মো. আব্দুল জব্বার বলেন, ‘২০০৩ সাল থেকে রফিকুল ইসলাম আমাদের মাদ্রাসায় অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত আছেন। এখনো আমাদের মাদ্রাসা থেকে তিনি অব্যাহতি নেননি।’

গনকিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট মাওলানা আবু আইয়ুব আনসারী বলেন, ‘মাদ্রাসার ব্যবস্থাপনা কমিটি আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।’

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আনোয়ার বলেন, ‘অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাহমুদুর রহমান খোন্দকার বলেন, ‘এ বিষয়ে দুটি পৃথক অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    স্বাস্থ্য খাতে নানামুখী সংকট, বঞ্চিত নিম্ন আয়ের মানুষ

    ‘দুর্নীতি সারা বিশ্বের সমস্যা’

    বিএনপির সমাবেশ

    ঢাকার পথে বাস চলাচল বন্ধ

    এক পদে দুই শিক্ষক নিয়োগের অভিযোগ

    শুষ্ক মৌসুম এলেই বিপদ পাহাড়ে প্রাকৃতিক বনের

    গোমতীর চরে শসার ভালো ফলন দামে খুশি চাষিরা

    রাস্তাঘাট বন্ধ করে সমাবেশ করা সংবিধানের কোথাও লেখা নেই: আইনমন্ত্রী 

    ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচের পর ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা

    বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে চলছে নেতা–কর্মীদের জন্য খিচুড়ি রান্না 

    স্বাস্থ্য খাতে নানামুখী সংকট, বঞ্চিত নিম্ন আয়ের মানুষ

    ‘দুর্নীতি সারা বিশ্বের সমস্যা’

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    ভবিষ্যৎ নিয়ে সন্দিহান নেইমার