Alexa
রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে গুলি, রিমান্ডে মুখ খোলেনি আসামি

আপডেট : ১২ আগস্ট ২০২২, ১৫:২৪

প্রাইম ব্যাংকের সাবেক পরিচালক ওয়াহিদ মুরাদ জামিল ওরফে লিংকন ও তাঁর সহযোগী সজল আলী। ছবি: আজকের পত্রিকা রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া থানা (পূর্ব) আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশুহাটের ইজারাদার আতিকুর রহমান কালুর বাড়িতে মাঝরাতে গুলি করার ঘটনায় গ্রেপ্তার দুজন পুলিশের রিমান্ডে গিয়েও কোনো তথ্য দেননি। এ দুই আসামিকে গতকাল বৃহস্পতিবার ও আজ শুক্রবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। 

গত বুধবার রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১-এর বিচারক মো. রেজাউল করিম আসামিদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড চাইলেও শুনানি শেষে আদালত দুই দিন মঞ্জুর করেন। পরদিন থেকে দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। রিমান্ড শেষে আগামীকাল শনিবার আসামিদের কারাগারে পাঠানোর কথা রয়েছে। 

এ দুই আসামি হলেন—প্রাইম ব্যাংকের সাবেক পরিচালক ওয়াহিদ মুরাদ জামিল ওরফে লিংকন (৫৬) ও তাঁর সহযোগী সজল আলী (২৫)। 

গ্রেপ্তার ওয়াহিদ ‘এভারেস্ট হোমস’ নামের একটি ডেভেলপার কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এ ছাড়া তিনি প্রাইম ব্যাংক, প্রাইম এশিয়া ইউনিভার্সিটি, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, ফারইস্ট ইসলামী সিকিউরিটিজ লিমিটেডের পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। ওয়াহিদের গাড়িচালক, দেহরক্ষী ও ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করেন সজল। 

জানা যায়, গত শনিবার দিবাগত রাতে নগরীর মুন্সিডাঙ্গা এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতা আতিকুর রহমান কালুর বাসার সামনে যান ওয়াহিদ ও সজল। এ সময় ওয়াহিদ তাঁর হাতে থাকা পিস্তল দিয়ে পাঁচ রাউন্ড গুলি করেন। এর মধ্যে তিন রাউন্ড গুলি করা হয় কালুকে লক্ষ্য করে। পরে ওয়াহিদ ও সজল প্রাইভেট কার নিয়ে পালানোর সময় পুলিশ থামানোর সংকেত দিলে চেকপোস্টে পুলিশকে লক্ষ্য করে আরও এক রাউন্ড গুলি করা হয়। পরে ওই রাতেই নগরীর উপশহরে ওয়াহিদের বাসা থেকে পিস্তল, শটগান ও বিপুল পরিমাণ গুলিসহ ওয়াহিদ ও সজলকে আটক করে পুলিশ। এ নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে নগরীর বোয়ালিয়া থানায় দুটি মামলা হয়েছে।

আজ দুপুরে নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা কালু দাবি করেন তিনি আসামিদের চেনেন না। কেন হামলা তা তিনি জানেন না। আবার গ্রেপ্তারের পর দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারাও গুলি ছোড়ার কারণ জানাননি। তাই তাঁদের রিমান্ডে নেওয়া হয়। তবে রিমান্ডেও তাঁরা মুখ খোলেননি। ওয়াহিদ বারবার একই কথা বলেছেন। কেন গুলি করেছেন তা তিনি নিজেই জানেন না বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। এর ভেতরে একটা রহস্য লুকিয়ে আছে। 

ওসি জানান, পুলিশ নিজেদের মতো করেও ঘটনা তদন্ত করছে। আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে তিনি আশাবাদী। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, সভাপতি রিভাসহ আহত ১০

    আশুলিয়া থেকে ঈশ্বরদী গিয়ে ধর্ষণের শিকার ২ তরুণী, গ্রেপ্তার ৪

    দ্বিতীয় স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীকে হত্যার অভিযোগ

    শেরপুরে মহিলা কলেজের অধ্যক্ষকে স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে মানববন্ধন

    পারিবারিক কলহে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা, স্বামী পলাতক

    ছুরিকাঘাতে চাঁদপুর জেলা আ. লীগ নেতাকে হত্যা

    ইভিএম বিরোধিতা রাজনৈতিক কৌশল, অন্তরে ঠিকই বিশ্বাস করে: ইসি আলমগীর

    মরদের রাস্তায় এনে গ্রামবাসীর মানববন্ধন, আসামি গ্রেপ্তারের হুঁশিয়ারি

    মরিয়ম মান্নানকে অনলাইনে ‘হেনস্তাকারীরা’ সিআইডির নজরে

    হাসপাতালে চিকিৎসকের অপেক্ষায় থেকে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ, চিকিৎসকসহ আটক ২ 

    মেয়ের জিম্মায় বাড়ি ফিরলেন রহিমা বেগম

    টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, নেই তাসকিন