Alexa
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ, প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২২, ১৮:৫০

শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার জুনাব আলী কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে অধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে কলেজ প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। 

শিক্ষার্থীরা জানান, কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মামুন মিয়া মজুমদার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক শিক্ষার্থীকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে অশ্লীল ছবি পাঠান। এই কথোপকথনের স্ক্রিনশট ছড়িয়ে গেলে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে নানাভাবে হুমকি দেওয়ার ঘটনা ঘটে। এই ঘটনা জানাজানি হলে শিক্ষার্থীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। 

একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ইয়াসিন আহমেদ বলেন, ‘প্রিন্সিপাল স্যার ফেসবুকে আমাদের এক সহপাঠীকে অশ্লীল কথা বলেছে। এই ঘটনার পর থেকে প্রিন্সিপাল স্যারের স্ত্রীসহ অনেকেই ওই শিক্ষার্থীকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। আমাদের দাবি অভিযুক্ত অধ্যক্ষ পদত্যাগ করতে হবে এবং দাবি না আদায় হওয়া পর্যন্ত আমরা ক্লাস বর্জন করেছি।’ 

ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। ছবি: আজকের পত্রিকা আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমরা অধ্যক্ষের পদত্যাগ চাই। আমাদের সুরক্ষিত রাখার দায়িত্ব অধ্যক্ষের, কিন্তু উনিই যদি এমন করে তাহলে আমরা কীভাবে কলেজে আসব।’ 

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বলেন, ‘স্যার সামাজিক মেসেঞ্জারে আমাকে খারাপ কথা বলে। তিনি আমাকে উপবৃত্তি দেওয়ার প্রলোভন দেয়। এ ছাড়া কলেজে বিনা মূল্যে পড়ানোসহ নানা প্রলোভন দেখায়। স্যার আমার কাছে বাজে ছবি চায় এবং নিজের বাজে ছবিও আমাকে পাঠায়। তারপর আমাকে হুমকি দেয় এ বিষয়ে কাউকে বললে আমার কলেজ থেকে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে।’

এদিকে এই ঘটনার বিচার দাবিতে সকাল ১০টা থেকে কলেজে বিক্ষোভ শুরু করে শিক্ষার্থীরা। এরপর সাড়ে ১১টায় কলেজে আসেন বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হালিমা খাতুন ও বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ রহমান। এ সময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে তাঁদের শান্ত করার চেষ্টা করেন তাঁরা। 

পরিস্থিতি শান্ত করতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বুড়িচংয়ের ইউএনও হালিমা খাতুন ও ওসি মারুফ রহমান। ছবি: আজকের পত্রিকা দুপুরে ইউএনও অন্যান্য শিক্ষক, অভিভাবক প্রতিনিধিদের নিয়ে আলোচনায় বসেন। দীর্ঘক্ষণ আলোচনা শেষে বিকেলে ইউএনও হালিমা খাতুন আজকের পত্রিকাকে জানান, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ছামিউল ইসলামকে প্রধান করে ৮ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কমিটি শুনানি শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান তিনি। 

অভিযোগের বিষয়ে অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মামুন মিয়া মজুমদার আজকের পত্রিকাকে জানান, কলেজের শিক্ষক ও বাইরের কিছু লোকজন মিলে তাঁকে কলেজ থেকে বিতাড়িত করার জন্য একটি সাজানো ঘটনা সৃষ্টি করেছে। মূলত ওই ছাত্রীকে তিনি কোনো প্রকার যৌন হয়রানি বা অশ্লীল ছবি পাঠাননি। 

অভিযুক্ত অধ্যক্ষ আরও বলেন, হয়রানির বিষয়টি বুঝতে পেরে তিনি বুধবার অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    নাফ নদী থেকে আবারও অজ্ঞাত ২ জনের মরদেহ উদ্ধার

    চাকরিতে পুনর্বহালের দাবিতে ‘করোনা যোদ্ধাদের’ মানববন্ধন

    সীতাকুণ্ডে নিখোঁজের ২ মাসেও খোঁজ মেলেনি যুবদল নেতা নুরুজ্জামানের

    কুমিল্লায় শিক্ষকদের ওপর হামলার পর পরীক্ষাকেন্দ্র স্থানান্তর

    ঢাবির মোতাহার হোসেন ভবনে ক্যানটিনের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

    নন্দীগ্রামের সেই প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব নিলেন ইউএনও

    চাঁদাবাজির অভিযোগের পর রমেকের ১৬ কর্মচারীকে বদলি

    ইডেন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃতরা কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকের বাসায়

    এসএসসি পরীক্ষার্থীর শ্রুতলেখক অনার্সের শিক্ষার্থী, পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার

    ৮০০ এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট চালুর মাইলফলক অর্জন করল ব্র্যাক ব্যাংক

    প্রথম চাকরিতে যোগ দিতে যাওয়ার পথেই প্রাণ গেল যুবকের

    ভূয়া আইডি দিয়ে তরুণীদের সঙ্গে প্রেম, আপত্তিকর ছবি হাতিয়ে ব্ল্যাকমেল