Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

স্ত্রীর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদক, প্রভাবশালীদের রোষানলে পড়ার অভিযোগ এমপি জাফরের

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২২, ১৭:০৩

এমপি জাফর ও তাঁর স্ত্রী শাহেদা বেগম। ফাইল ছবি কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমের স্ত্রী শাহেদা বেগমের সম্পদের অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। শাহেদা বেগম চকরিয়া পৌরসভার পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। 

দুদক সূত্রে জানা যায়, চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলমের স্ত্রী শাহেদা বেগমের বিরুদ্ধে সরকারি জমি দখল, জলমহাল ও অবৈধ বালু উত্তোলনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে কোটি টাকা সম্পদ অর্জনের অভিযোগ তুলে এক ব্যক্তি দুদকে অভিযোগ দাখিল করেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ২১ জুলাই দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালক খান মো. মীরজানুল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠিতে দুদক সমন্বিত কক্সবাজার জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালককে এই অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দেন। 

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে সংসদ সদস্য জাফর আলম তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, এ তদন্ত প্রক্রিয়ায় আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা দুদককে পূর্ণ সহযোগিতা করব। 

সদ্য চাকরি থেকে অবসরপ্রাপ্ত একজন শীর্ষ আমলা, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়র তাঁকে রাজনৈতিকভাবে রোষানলে ফেলার জন্য দুদকে তাঁর স্ত্রীর নামে অভিযোগ জমা দিয়েছেন দাবি করেন জাফর। তবে সেই শীর্ষ আমলা, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়রের নাম স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেননি তিনি। 

‘নীল নকশা’ আঁকা হয়েছে এমন মন্তব্য করে সংসদ সদস্য জাফর আলম স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘কক্সবাজারের ভূমি অধিগ্রহণ, পানি শোধনাগার দুর্নীতিসহ বেশ কয়েকটি সরকারি প্রকল্পের তদন্ত কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সেখানে সদ্য চাকরি থেকে অবসরে যাওয়া একজন শীর্ষ আমলা ও বেশ কয়েকজন প্রভাবশালীর নাম উঠে আসে। তখন আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতিকে সমর্থন করে এসব দুর্নীতির সমালোচনা করে গণমাধ্যম ও বিভিন্ন ফোরামে প্রকাশ্যে বক্তব্য দিয়েছি। এ কারণে দুদকে অভিযোগ দিয়ে ওই চক্রটি।’ 

মুখ বন্ধ রাখতে দুর্নীতিবাজ চক্রটি আমাকে উপজেলা পর্যায়ের একজন নেতা দিয়ে বসার প্রস্তাব দিয়েছিল উল্লেখ করে জাফর আলম লেখেন, ‘আমি একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে আমলার হুমকিতে সমঝোতার করতে অস্বীকৃতি জানাই। তখন একজন বিতর্কিত বিদ্রোহী উপজেলা চেয়ারম্যানের মাধ্যমে আমার ও পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ দেয়। এসব অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা না পাওয়ায় আনুষ্ঠানিক কোনো তদন্ত হয়নি। পরে পৌর ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কেন্দ্রিক দলীয় বিভাজনকে কাজে লাগায় চক্রটি।’ 

অবসরপ্রাপ্ত আমলা ও একজন পৌর মেয়র সশরীরে গিয়ে অভিযোগপত্র দিয়েছে বর্ণনা দিয়ে জাফর স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘ইউপি নির্বাচনে পরাজিত এক ইউপি চেয়ারম্যানকে (উপজেলা পর্যায়ের শীর্ষ নেতা) দিয়ে পুনরায় অভিযোগ দেওয়ানো হয়। এবার ওই অবসরপ্রাপ্ত আমলা ও একজন পৌর মেয়র সশরীরে গিয়ে অভিযোগপত্র জমা দেন। আমলার অব্যাহত অপচেষ্টায় আমার পরিবারের সদস্যদের সম্পদ অনুসন্ধানে তদন্ত প্রক্রিয়া শুরু করার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।’ 

দুদকের পুরো তদন্ত প্রক্রিয়ায় তিনি ও তাঁর পরিবার পূর্ণ সহযোগিতা করবেন জানিয়ে জাফর আলম লেখেন, ‘আমি আইনপ্রণেতা হিসেবে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। পুরো তদন্ত প্রক্রিয়ায় আমি ও আমার পরিবারের সদস্য বর্গ পূর্ণ সহযোগিতা করব।’ 

জাফর আলমের স্ত্রী ও পালাকাটা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শাহেদা বেগম গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘মূলত আমার স্বামী সংসদ সদস্য জাফর আলমের রাজনৈতিক বিরোধী গ্রুপ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এই অভিযোগ দিয়েছে। বিএনপি আমলে আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী হওয়ায় আমাকে মহেশখালীর দুর্গম একটি স্কুলে বদলি করা হয়। এমনকি চাকরিচ্যুত করতে চেয়েছিল। দুদকে অভিযোগ করার পেছনে অবসরপ্রাপ্ত একজন প্রতাপশালী আমলা ও আওয়ামী লীগ নেতাদের পরোক্ষ ইন্ধন রয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই।’

দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শাহেদা বেগমের সম্পদের অনুসন্ধানে কাজ শুরু হয়েছে। নিয়ম মেনেই তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তকাজ চলবে। তদন্তে অবৈধ সম্পদ পাওয়া গেলে, তাঁর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে হত্যা মামলার ১ আসামি গ্রেপ্তার 

    লক্ষ্মীপুরে বিএনপির সমাবেশ ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ

    পদ্মাসেতু নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবক, স্ত্রীর দাবি প্রতিহিংসা 

    নাশকতার মামলায় স্বেচ্ছাসেবক দলের ৭ নেতা রিমান্ডে

    পদ্মা নদীতে ভাসমান মরদেহের পরিচয় মিলেছে

    বিএনপির সমাবেশস্থলে ছাত্রলীগের হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ

    ধর্ষণের অভিযোগে খুবি শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

    প্রথম দক্ষিণ এশীয় হিসেবে ‘মিলেনিয়াম লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন স্থপতি মেরিনা

    মাদারগঞ্জে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

    আর্জেন্টিনায় উগ্র সমর্থকদের ক্ষোভের আগুনে পুড়ে ছাই ফুটবলারদের গাড়ি

    দেশে-বিদেশে সর্বত্রই ধিক্কৃত হচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    ভেড়ামারায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২