Alexa
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

নামেই রেলস্টেশন নন্দনগাছী

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২২, ১৩:৪৫

নামেই রেলস্টেশন নন্দনগাছী রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার নন্দনগাছী রেলস্টেশন শুধু নামেই। যাত্রীদের জন্য বিন্দুমাত্র সুযোগ-সুবিধা নেই সেখানে। রেলস্টেশনের কার্যক্রম দীর্ঘ সাত বছর বন্ধ রয়েছে। স্টেশনটিতে ট্রেন থামলেও লোকবলের অভাবে টিকিট বিক্রিসহ সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এতে একদিকে যাত্রীদের ভোগান্তি বাড়ছে। অন্যদিকে লোকবল না থাকায় স্টেশনের সম্পদ চুরি হয়ে যাচ্ছে।

জানা যায়, ১৯২৯ সালে উপজেলার নন্দনগাছী স্টেশনটি স্থাপিত হয় নিমপাড়া ইউনিয়নের বরকতপুর এলাকায়, যা নন্দনগাছী স্টেশন নামে পরিচিত। ৯০ বছর আগে স্থাপিত স্টেশনটির কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায় ২০১৫ সালের শেষের দিকে। নিয়ম অনুযায়ী, এই স্টেশনে টিকিট মাস্টার, স্টেশন মাস্টার, পোর্টারম্যান, কয়েন্সম্যান, গেটম্যানসহ প্রায় ১২ জন জনবল ছিল। কিন্তু বর্তমানে শুধু পোর্টারম্যান পদে একজন কর্মরত আছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে ধান ও পাট শুকাচ্ছেন স্থানীয়রা। স্টেশনটিতে একটি টয়লেট থাকলেও নেই পানি সরবরাহের ব্যবস্থা। আবাসিক ভবনের ময়লা-আবর্জনা ও আগাছায় পরিপূর্ণ হয়ে গেছে স্টেশনের আশপাশের এলাকা।

স্থানীয়রা জানান, রাত হলেই ভুতুড়ে পরিবেশ বিরাজ করে স্টেশনে। অপরাধীরা এসে আশ্রয় নেয় সেখানে। উপজেলার মাদক বিক্রির স্পট এটি। এ ছাড়া অযত্ন-অবহেলায় স্টেশনের গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জামাদি নষ্টও হচ্ছে।

রেলওয়ে বিভাগ জানায়, এই রুটে চলাচলকারী তিনটি ট্রেন এই স্টেশনে যাত্রাবিরতি করে। টিকিট মাস্টার না থাকায় যাত্রীরা এখান থেকে কোনো টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন না। এই স্টেশন থেকে ট্রেন ভ্রমণ করতে গেলে টিকিট আনতে হয় ১০ কিলোমিটার দূরের সরদহ অথবা ১২ কিলোমিটার দূরের আড়ানী স্টেশন থেকে। স্থানীয় লোকজন নিজেরা গিয়ে, কখনো যানবাহনের চালকদের মাধ্যমে টিকিট কেটে রেখে এই স্টেশন থেকে ট্রেন ভ্রমণ করছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, টিকিট না পেয়ে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছেন যাত্রীরা। স্টেশনটি দ্রুত চালু করে যাত্রীদের ভোগান্তি দূর করার দাবি এলাকাবাসীর।

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন চারঘাট উপজেলার সভাপতি মো. কামরুজ্জামান বলেন, আবাদযোগ্য ভূমি চাষাবাদের অভাবে যেমন পরিত্যক্ত হয়ে যায়, এ স্টেশনের অবস্থাও তাই হয়েছে। স্টেশনটি চালু হলে এই অঞ্চলের যাত্রীদের খুব উপকার হবে।

স্থানীয় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জানান, এই স্টেশন পূর্ণাঙ্গভাবে চালু থাকলে এই অঞ্চলের মানুষ খুব সহজেই আন্তনগর ট্রেনে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা শহরে সহজে যাতায়াত করতে পারতেন।

রেলওয়ে রাজশাহীর চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (পশ্চিম) পদে এক মাস আগে দায়িত্ব নেন সুজিত কুমার বিশ্বাস। তিনি গতকাল শনিবার বলেন, জনবল সংকটের কারণে নন্দনগাছী স্টেশনের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। নন্দনগাছী সার্বিক দিক বিবেচনায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি স্টেশন। বিভিন্ন পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া চলমান আছে। খুব দ্রুতই নন্দনগাছী স্টেশনটি চালু করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন তিনি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    এখন ট্রাস্টি বোর্ড পুনর্গঠন-আতঙ্ক

    ২৫ কিমি সড়কে খানাখন্দ

    ঘাট-সংকটে দৌলতদিয়া ফেরিজটে ভোগান্তি

    বিচ্ছিন্ন জনপদ রামুক্যাছড়ি পৌঁছায় না সরকারি সুবিধা

    বিসিএসজট কাটাতে কোন পথে পিএসসি

    মিশ্র বর্জ্যে ঝুঁকিতে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা

    এখন ট্রাস্টি বোর্ড পুনর্গঠন-আতঙ্ক

    ২৫ কিমি সড়কে খানাখন্দ

    ভোটে ‘লড়তে’ হচ্ছে আ.লীগের পিকুলকে

    ভোটে হেরে গিয়ে লেবু চাষ বুলবুলের বাজিমাত

    ধুঁকছে কমিউনিটি ক্লিনিক

    দেড় বছরে রডে মরিচা অতঃপর কাজ শুরু