Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

অসদাচরণের দায়ে তিন বিচারককে তিরস্কার

আপডেট : ১৬ জুলাই ২০২২, ২১:০২

অসদাচরণের দায়ে তিন বিচারককে তিরস্কার অসদাচরণের দায়ে তিন বিচারককে ‘তিরস্কার’ দণ্ড দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি তিন বিচারকের তিরস্কার নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে আইন মন্ত্রণালয়। তিন বিচারক হলেন—রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এবং আইন ও বিচার বিভাগে সংযুক্ত মো. ওয়াহিদুজ্জামান ও মো. মাহমুদুল হাসান। 

গত ৬ জুলাই জারি করা প্রজ্ঞাপনে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সাবেক ডেপুটি রেজিস্ট্রার (যুগ্ম জেলা জজ) বর্তমানে আইন ও বিচার বিভাগে সংযুক্ত কর্মকর্তা মো. মাহমুদুল হাসান সম্পর্কে বলা হয়, বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস (শৃঙ্খলা) বিধিমালা, ২০১৭ এর বিধি ২ (চ) মোতাবেক ‘অসদাচরণ’ এর অভিযোগের দায়ে সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে পরামর্শক্রমে বিভাগীয় মামলা নম্বর ৩ / ২০১৯ রুজু করা হয়। ব্যক্তিগত শুনানি শেষে তাঁকে এ অভিযোগের দায়ে ‘তিরস্কার’ দণ্ড আরোপের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে সুপ্রিম কোর্ট সরকারের সিদ্ধান্তে একমত পোষণ করে। 

পরদিন ৭ জুলাই পৃথক দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। জামালপুর জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সাবেক বিচারক বর্তমানে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) এম আলী আহমেদের বিষয়ে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস (শৃঙ্খলা) বিধিমালা, ২০১৭ এর বিধি ২ (চ) মোতাবেক ‘অসদাচরণ’ এর অভিযোগের দায়ে সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে পরামর্শক্রমে বিভাগীয় মামলা নম্বর ১ / ২০২১ রুজু করা হয়। ব্যক্তিগত শুনানি শেষে তাঁকে এ অভিযোগের দায়ে ‘তিরস্কার’ দণ্ড আরোপের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে সুপ্রিম কোর্ট সরকারের সিদ্ধান্তে একমত পোষণ করে। 

এ ছাড়া যশোরের সাবেক জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার বর্তমানে আইন ও বিচার বিভাগে সংযুক্ত মো. ওয়াহিদুজ্জামানের বিষয়ে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর বিধি ৩ (বি) ও ৩ (ডি) অনুযায়ী যথাক্রমে ‘অসদাচরণ’ ও ‘দুর্নীতি’র অভিযোগে বিভাগীয় মোকদ্দমা নম্বর ৩ / ২০১৭ রুজু করা হয়। কারণ দর্শানোর পরিপ্রেক্ষিতে তাঁর লিখিত জবাব, ব্যক্তিগত শুনানিতে বক্তব্য, বিভাগীয় মোকদ্দমার তদন্তকারী কর্মকর্তার তদন্ত প্রতিবেদন ও সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র পর্যালোচনায় তাঁর বিরুদ্ধে ‘অসদাচরণ’ এর অভিযোগ প্রমাণিত হয়। তাই সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শের আলোকে মাহমুদুল হাসানকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর বিধি ৪ (২) (এ) অনুযায়ী ‘তিরস্কার’ দণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    আরপিও সংশোধন: তিন চিঠির পর আইন মন্ত্রণালয়ের সাড়া পেল ইসি

    সংসদ নির্বাচনের আগে আরপিও সংশোধন প্রস্তাবে সাড়া দিচ্ছে না মন্ত্রণালয়

    অসদাচরণের জন্য পদ হারালেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মারুফা আকতার

    উচ্চ আদালতে জামিন জালিয়াতির অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে: সংসদে আইনমন্ত্রী

    আইনমন্ত্রী আনিসুল হক করোনায় আক্রান্ত

    বাড়িতেই সবচেয়ে বেশি সহিংসতার শিকার হয় শিশুরা: জরিপ

    বিজেপির টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে জিতলেন রবীন্দ্র জাদেজার স্ত্রী রিভাবা 

    সমাবেশ করতে এসে বসে পড়ার পরিকল্পনা করেছিল বিএনপি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    ফুটবল বিশ্বকাপ

    বিশ্বকাপে ব্যর্থতার দায়ে বরখাস্ত হলেন এনরিকে

    হৃদরোগ প্রতিরোধে চিকিৎসকদের উদ্বুদ্ধ হওয়ার উপর জোর

    নয়াপল্টনে অ্যাকশন ছাড়া উপায় ছিল না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    পানির সংকট, পাঁচ ঘণ্টা পরও জ্বলছে শ্রীপুরের সেই তুলার গুদাম