Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

যাত্রীর চাপ থাকলেই বাড়বে লঞ্চ, হবে বিশেষ সার্ভিস

আপডেট : ০৬ জুলাই ২০২২, ১৩:১৬

ফাইল ছবি ঈদুল আজহার বাকি আর মাত্র তিন দিন। অথচ নৌপথে বাড়ি ফেরার নেই তেমন তোড়জোড়। এবার ঢাকা-বরিশাল নৌপথে বিশেষ সার্ভিস থাকার সম্ভাবনাও কম। নিয়মিত যে ৮-১০টি লঞ্চ ও স্টিমার থাকে, তা দিয়েই ঈদযাত্রা শেষ করতে চায় লঞ্চ মালিক ও বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।

কারণ হিসেবে জানা গেছে, পদ্মা সেতু হওয়ায় যাত্রীসংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে কমে গেছে। এই ধস ঠেকাতে লঞ্চের ভাড়াও কমিয়েছে। অপরদিকে এ রুটের স্টিমার সার্ভিস সপ্তাহে মাত্র এক দিনে নেমে এসেছে।

বরিশাল নৌবন্দরে গত দুই দিন ঘুরে দেখা গেছে, যাত্রী চাপ কম। নগরের লঞ্চের বুকিং কাউন্টারগুলোতেও ঈদের ঠিক আগেও প্রাণ নেই।

অভ্যন্তরীণ লঞ্চ মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যানের সঙ্গে তাঁরা সোমবার সভা করেছেন। ওই সভায় লঞ্চ মালিকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে গার্মেন্টস ছুটির ওপর নির্ভর করে ঈদে দরকার হলে তাঁরা বাড়তি লঞ্চ দেবেন। তবে যদি যাত্রীর চাপ থাকে তাহলেই লঞ্চ বাড়ানো হবে। ৭ ও ৮ জুলাই তাদের নিয়মিত লঞ্চই থাকবে ৮-১০টির মতো। এর বাইরে বিশেষ লঞ্চ দেওয়ার দরকার আছে কি না, তা এখনো বলা যাচ্ছে না।

সুন্দরবন ১০ লঞ্চের মাস্টার মজিবর রহমান বলেন, ঈদে এবার আর বিশেষ সার্ভিস হচ্ছে না। সোমবার বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যানের সঙ্গে বৈঠকে লঞ্চ মালিকেরা এমনটাই জানিয়েছেন। তারা বলেছেন যাত্রী হয় না, তাই ঈদের আগে ৭-৮টি নিয়মিত লঞ্চ থাকবে। কিছু লঞ্চ অপেক্ষমাণ থাকবে।

নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের বরিশালের পরিদর্শক কবির হোসেন বলেন, লঞ্চ মালিকেরা বিশেষ সার্ভিসের তালিকা করে আমাদের দেন। কিন্তু এ বছর এখন পর্যন্ত সেই তালিকা দেয়নি।

ঢাকা বরিশাল মোরেলগঞ্জ স্টিমার সার্ভিস এমভি মধুমতির মাস্টার আব্দুল হাই বলেন, এ রুটে মাত্র ২টি স্টিমার চলে। পদ্মা সেতু চালুর কারণে সপ্তাহে মাত্র এক দিনে নেমে আসছে যাত্রীসেবা। এ অবস্থায় ঈদে ট্রিপও বাড়বে না। কেবল আগামী সোমবারের বাঙালীর ট্রিপ শনিবার দেওয়া হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসির বরিশালের ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন বলেন, ঈদের পরে যাত্রীর ওপর নির্ভর করে বরিশাল থেকে ট্রিপ বাড়ানো হতে পারে। তবে বিশেষ সার্ভিসের কোনো পরিস্থিতি এখনো নেই।

নৌযাত্রী ঐক্য পরিষদ বরিশাল জেলা আহ্বায়ক দেওয়ান আব্দুর রশিদ নিলু বলেন, নামমাত্র স্পেশাল সার্ভিস না দিয়ে করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানা এবং যাত্রীর চাপ রোধে বাড়তি নৌযান রাখা দরকার।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    ভরা বর্ষায়ও সেচ দিয়ে আমন চাষ

    বন্ধ হয়ে যাচ্ছে মুরগির খামার

    আমন চাষের শুরুতেই বাড়তি খরচের বোঝা

    তিন দিনে আ.লীগ নেতার ৩ ঘেরে বিষ দিল দুর্বৃত্তরা

    পাঁচ দিনে চিনির দাম বাড়ল ৭ টাকা

    তরুণের মৃত্যুদণ্ড ও কিছু কথা

    ধর্ষণের অভিযোগে খুবি শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

    প্রথম দক্ষিণ এশীয় হিসেবে ‘মিলেনিয়াম লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন স্থপতি মেরিনা

    মাদারগঞ্জে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

    আর্জেন্টিনায় উগ্র সমর্থকদের ক্ষোভের আগুনে পুড়ে ছাই ফুটবলারদের গাড়ি

    দেশে-বিদেশে সর্বত্রই ধিক্কৃত হচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    ভেড়ামারায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২