Alexa
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

রাজস্ব লক্ষ্য অর্জন নিয়ে সংশয়ে এনবিআর

আপডেট : ০৬ জুলাই ২০২২, ১৩:৫৩

রাজস্ব লক্ষ্য অর্জন নিয়ে সংশয়ে এনবিআর বিদায়ী ২০২১-২২ অর্থবছরের রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন খোদ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

গতকাল মঙ্গলবার এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইসের (ইএফডি) ১৮তম লটারির ড্র উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ সন্দেহ প্রকাশ করেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, গত অর্থবছরের রাজস্ব আদায়ের চূড়ান্ত তথ্য পাওয়া যাবে চলতি জুলাইয়ের ১৫ তারিখের পরে। গত অর্থবছরের পূর্বনির্ধারিত ৩ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রা হয়তো অর্জিত হবে না। তবে লক্ষ্যের কাছাকাছি পৌঁছানো সম্ভব হবে। কারণ, লক্ষ্য সবসময় আদায়ের দক্ষতার চেয়ে বেশি নির্ধারণ করা হয়, যা একটি স্বাভাবিক ব্যাপার।

এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরের ১১ মাসে (জুলাই-মে) ৩৬ হাজার ৩১০ কোটি ৩৪ লাখ টাকার রাজস্ব ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এনবিআরকে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে হলে একক মাস হিসেবে শুধু জুন মাসেই ৭৯ হাজার কোটি টাকার বেশি রাজস্ব আদায় করতে হবে, যা অসম্ভব বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। গত মে পর্যন্ত এনবিআরের তিন বিভাগ (আয়কর, ভ্যাট ও শুল্ক) নির্ধারিত ২ লাখ ৮৬ হাজার ৯১৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আদায় করেছে ২ লাখ ৫০ হাজার ৬০৫ কোটি ২০ লাখ টাকা। রাজস্ব আদায়ের প্রবৃদ্ধি ১৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম জানান, ইএফডি চালানের ১৮তম লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। লটারির ড্র এনবিআরের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। এ ছাড়া তিন কার্যদিবস পর পত্রিকায় প্রকাশ করা হবে। ইএফডি চালানের লটারিতে প্রথম পুরস্কার ১ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার ৫০ হাজার ও তৃতীয় পুরস্কার ২৫ হাজার টাকা (পাঁচটি)। এ ছাড়া চতুর্থ পুরস্কার হিসেবে ৯৩ জনকে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হবে। জুন মাসের ১ থেকে ৩০ তারিখ পর্যন্ত চালানের ওপর ভিত্তি করে এই ড্র অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এর আগে ১৭ বার ইএফডি লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে ১ হাজার ৭১৭টি ভ্যাট চালান বা ইএফডি লটারির পুরস্কার পাওয়ার কথা। কিন্তু সব মিলে মাত্র ৯৫ জনকে পুরস্কার দিতে পেরেছে এনবিআর।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘ইএফডি লটারির প্রচারণা বাড়ানো দরকার। ১৭টি ড্র হলেও পুরস্কারের জন্য দাবি আসে না। লটারির পদ্ধতি সহজ করা হলেও পুরস্কার দেওয়ার জন্য বিজয়ীদের খুঁজে পাচ্ছি না। এ জন্য করদাতাদের এগিয়ে আসতে হবে।’

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, দেশে ৭ হাজারের বেশি ইএফডি বসানো হলেও বড় চ্যালেঞ্জ ইনভয়েসিং। দোকানদারদের তদারকি শুধু এনবিআরের পক্ষে সম্ভব নয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    এখন ট্রাস্টি বোর্ড পুনর্গঠন-আতঙ্ক

    বিধিনিষেধে ধুঁকছে মোটরসাইকেল শিল্প

    বিচ্ছিন্ন জনপদ রামুক্যাছড়ি পৌঁছায় না সরকারি সুবিধা

    বিসিএসজট কাটাতে কোন পথে পিএসসি

    মিশ্র বর্জ্যে ঝুঁকিতে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা

    আগ্রাসী ঋণে ঝুঁকছে ব্যাংক

    হিমাচল প্রদেশে গাড়ি খাদে পড়ে ৭ পর্যটক নিহত

    দেশেই ফিস্টুলার উন্নত চিকিৎসা 

    পাকিস্তানের রেকর্ড ভেঙে দিল ভারত

    সিএসপিবি প্রকল্পে ৩০৮ জনের চাকরির সুযোগ 

    ভুয়া এসএসসি পরীক্ষার্থী আটক, মুচলেকায় ছাড়

    বেপরোয়া এক চেয়ারম্যান