Alexa
শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

কমলাপুরে আজও টিকিটপ্রত্যাশীদের উপচে পড়া ভিড়

আপডেট : ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:১১

আগামী ৭ জুলাইয়ের অগ্রিম টিকিট জন্য কমলাপুরে টিকিটপ্রত্যাশীদের উপচেপড়া ভিড়। ছবি: আলী হোসেন মিন্টু গত শুক্রবার থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করে বাংলাদেশ রেলওয়ে। আজ রোববার দেওয়া হচ্ছে আগামী ৭ জুলাইয়ের অগ্রিম টিকিট। বেশির ভাগ যাত্রীদের এই দিনের টিকিটের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। গত দুই দিনের তুলনায় আজ কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট প্রত্যাশী যাত্রীদের ভিড় ছিল সবচেয়ে বেশি। তবে যাত্রীরা কাঙ্ক্ষিত টিকিট না পাওয়ার অভিযোগ করেছেন। 

সরেজমিন কমলাপুর রেলস্টেশনে দেখা যায়, সকাল আটটা থেকে স্টেশনের কাউন্টার এবং অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। টিকিট নিতে কেউ গত রাত থেকে আবার কেউবা ভোর থেকে কাউন্টারের সামনে লাইন ধরেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত টিকিট পাবেন কিনা তা নিয়েও তাদের মধ্যে রয়েছে শঙ্কা। চাহিদার তুলনায় টিকিটের সংখ্যা কম হওয়ায় অনলাইনেও টিকিট দ্রুত বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। ফলে সব যাত্রী অনলাইনে গিয়েও টিকিট পাচ্ছেন না। 

উত্তরাঞ্চলের লালমনি এক্সপ্রেসের টিকিট কাটার জন্য আজ ভোরবেলায় কমলাপুর রেলস্টেশনে এসেছেন আজিজ বেপারী। তিনি আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘আগামী ৭ জুলাই বৃহস্পতিবার অফিসের কাজ করে রাতেই বাড়ির উদ্দেশ্যে পরিবার নিয়ে রওনা দিতে চাই। তাই ট্রেনের টিকিট কাটতে এসেছি। কিন্তু ভোরবেলা এসে ১৮০ নম্বর সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে আছি। আমার আগে আরও অনেক মানুষ আছে। শেষ পর্যন্ত টিকিট পাব বলে মনে হয় না। লাইনের ২৫-৩০ জন পাওয়ার পরেই টিকিট নাকি শেষ হয়ে যায়। তাহলে এত টিকিট কোথায় যায় সেটা আমরা তো বুঝি না। দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট যদি না পাই তাহলে বাড়ি যাব কীভাবে।’ 

গত রাত থেকে টিকিটের জন্য অপেক্ষা করতে থাকা সিরাজুল ইসলাম নামের এক যাত্রী দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘প্রথমে বাসের অগ্রিম টিকিট কাটার জন্য চেষ্টা করেছি। কিন্তু বাসের সব টিকিট শেষ হয়ে গেছে। কোনো টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। ট্রেনের টিকিট কাটার জন্য এসেছি। ট্রেনের টিকিটের জন্য যুদ্ধ করে লাইনে দাঁড়াতে হয়। ভাগ্যে থাকলে পাওয়া যায়, না থাকলে পাওয়া যাচ্ছে না। সাধারণ মানুষের টিকিট পাওয়া লাখ টাকার সমান হয়ে গেছে। আগামী ৭ তারিখের টিকিট পাওয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে।’ 

টিকিট কাটতে আসা মহিলা যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, মহিলাদের টিকিট দেওয়া হচ্ছে মাত্র দুটি কাউন্টারে। তাছাড়া ছেলেদের লাইনে অনেক দ্রুত টিকিট দেওয়া হচ্ছে কিন্তু মহিলাদের লাইন দ্রুত এগোচ্ছে না। তাই মহিলাদের টিকিট দেওয়ার লাইনের সংখ্যা বাড়ানোর কথা বলেছেন মহিলা যাত্রীরা। 

কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার আজকের পত্রিকা বলেন, ‘অন্যান্য দিনের চেয়ে যাত্রীদের টিকিটের চাহিদা আজকে সবচেয়ে বেশি। ৭ তারিখ বৃহস্পতিবার কর্ম দিবসের শেষ দিন ফলে সব মানুষই এই দিনে বাড়ি যেতে চান। সুতরাং সবাই টিকিট পাবেন না।’ 

এদিকে আজ সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ঢাকা থেকে অনলাইনে বিক্রি হয়েছে প্রায় ১০ হাজার ৬০০টি টিকিট এবং কাউন্টারে বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪ হাজার ৭১১টি টিকিট। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    দক্ষিণখানে ওয়াশিং ফ্যাক্টরিতে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ২ 

    ফেসবুক লাইভে এসে নিজের দুর্দশার কথা জানালেন এক প্রবাসী

    পাড়া দিয়ে টেনে ছিঁড়ে ফেলব: ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির অডিও

    এবার ট্রেনের ইঞ্জিন আটকে বিনা ভাড়ায় ভ্রমণ করলেন চবির ভর্তিচ্ছুরা

    ৩১৩ কিমি হেঁটে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে মোস্তফা মিয়া

    গবেষণা বাড়লে গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে হোমিওপ্যাথির

    আগামী সপ্তাহে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছেন আইএমএফ কর্মকর্তারা

    অন্তিম গান

    টিভিতে আজকের খেলা (২০ আগস্ট ২০২২, শনিবার)

    প্রাচীন প্রাচীর

    আরও সাড়ে ৭৭ কোটি ডলারের অস্ত্র পাচ্ছে ইউক্রেন

    ভালো করতে চাইলে