Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

বাড়ছে যমুনা নদীর পানি, প্লাবিত হচ্ছে চরাঞ্চল

আপডেট : ০২ জুলাই ২০২২, ১৮:৪০

সিরাজগঞ্জ ও কাজীপুর পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। ছবি: আজকের পত্রিকা টানা‍ বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে সিরাজগঞ্জ ও কাজীপুর পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। একই সঙ্গে অভ্যন্তরীণ নদ-নদীর পানিও বাড়ছে। এতে তলিয়ে যাচ্ছে ফসলি মাঠ। নতুন করে পানি বাড়ায় জেলার কাজীপুর, সদর, বেলকুচি, শাহজাদপুর ও চৌহালী উপজেলার পানিবন্দী লোকজনের দুর্ভোগ বেড়েছে। 

জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ শহররক্ষা বাঁধের হার্ড পয়েন্টে ২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৫৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে ও কাজীপুর পয়েন্টে এক সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৪৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গত তিন দিন ধরে যমুনার পানি পুনরায় বাড়তে শুরু করেছে। এতে চরাঞ্চলের নিম্নাঞ্চল এলাকা আবারও প্লাবিত হতে শুরু করেছে। ফলে নতুন করে পানিবন্দী লোকজনের দুর্ভোগ বেড়েছে। যমুনার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়েছে নদীভাঙন। গত দুই দিনে শাহজাদপুর উপজেলার গালা ইউনিয়নে ১৫টি ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙনের মুখে রয়েছে আরও অনেক ঘরবাড়ি। ভাঙনরোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে। 

এদিকে, চলতি বন্যায় সিরাজগঞ্জে ৭ হাজার ৭৪১ দশমিক ৫০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে। এতে প্রায় ৬৫ হাজার কৃষকের ১৪০ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে। 

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, দুই দফায় গালা এলাকায় ১৫টি ঘরবাড়ি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে এর আগে ২০ হাজার বস্তা বালুর বস্তা ফেলা হয়েছিল। নতুন করে আবারও ফেলা হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে দেড় টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। 

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক বাবলু কুমার সূত্রধর বলেন, চলতি বন্যায় জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ১২ হাজার ৫৯৯ হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে যায়। এর মধ্যে ৭ হাজার ৭৪১ দশমিক ৫০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ৬৫ হাজার ৪৫০ কৃষক। এবারের বন্যায় ১৪০ কোটি ৫০ লাখ ৬৬ হাজার টাকার ফসল নষ্ট হয়েছে। নষ্ট হওয়া ফসলের মধ্যে রয়েছে-আউশ ধান, তিল, আখ, গ্রীষ্মকালীন সবজি, পাট, ভুট্টা, পেঁপে, কাউন, মরিচ, বোনা আমন ও রোপা আমনের বীজতলা। এর মধ্যে পাটচাষিদের বেশি ক্ষতি হয়েছে। 

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেন, যমুনার পানি বাড়লেও বন্যার সম্ভাবনা নেই।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    পাবনায় ট্রাকচাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত

    অভাব দমিয়ে সাফল্যের সিঁড়িতে তানোরের রায়হান 

    প্রধানমন্ত্রীর সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের অনুদান পেলেন বগুড়ার ৮ সাংবাদিক

    বগুড়ায় ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ২ 

    আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে গুলি, রিমান্ডে মুখ খোলেনি আসামি

    সাপের কামড়ে অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু

    ধর্ষণের অভিযোগে খুবি শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

    প্রথম দক্ষিণ এশীয় হিসেবে ‘মিলেনিয়াম লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন স্থপতি মেরিনা

    মাদারগঞ্জে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

    আর্জেন্টিনায় উগ্র সমর্থকদের ক্ষোভের আগুনে পুড়ে ছাই ফুটবলারদের গাড়ি

    দেশে-বিদেশে সর্বত্রই ধিক্কৃত হচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    ভেড়ামারায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২