Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

তরুণের মাকে হাত-পা বেঁধে পুড়িয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ২

আপডেট : ২৯ জুন ২০২২, ১৮:৩৮

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের চরঈশ্বরদিয়া গ্রামে নিহত লাইলীর বাড়িতে বুধবার স্বজনদের বিলাপ। ছবি: আজকের পত্রিকা ময়মনসিংহ মহানগরীতে প্রেম করে তরুণীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার জেরে তরুণের মাকে হাত-পা বেঁধে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার সকালে লাইলী নামের ওই নারীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন মেয়ের মা তাঁর সহযোগীরা। পরে রাতে গৃহবধূর স্বামীর করা মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন মো. জাহাঙ্গীর (৩৫) ও তাঁর স্ত্রী আছমা আক্তার (৩২)।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে লাইলীর স্বামী আব্দুর রশিদ আটজনকে আসামি করে মামলা করেন। অন্য আসামিরা হলেন মেয়ের বাবা খোকন মিয়া কাজল ও মা নাসিমা আক্তার কনা এবং কামাল মিয়া, বাবুল, কামালের স্ত্রী নাসিমা আক্তার বৃষ্টি ও বাবুলের স্ত্রী রোমানা।  

মামলার বরাত দিয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের চরঈশ্বরদিয়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের (২০) সঙ্গে প্রতিবেশী খুকি আক্তারের (১৮) দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। দুই পরিবার সে সম্পর্ক মেনে নিচ্ছিল না। গত রোববার তাঁরা দুজনে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। এতে ক্ষিপ্ত হয় মেয়ের পরিবারের লোকজন। মেয়েকে খুঁজে না পেয়ে মঙ্গলবার বাড়িতে এসে ছেলের মা লাইলীকে একা পেয়ে প্রথমে গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তার দিয়ে হাত-পা বেঁধে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুন জ্বলতে থাকলে স্থানীয় বাসিন্দারা লাইলীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠান। সেখানে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে লাইলীর মৃত্যু হয়।’

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামীর করা মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

লাইলী আক্তারের স্বামী আব্দুর রশিদ বলেন, ‘আমার স্ত্রীর চিকিৎকার করে বাঁচার আকুতি জানিয়েও রেহাই পেলেন না। দোষ কি শুধুই আমার ছেলের? মেয়েটা না গেলে কি ছেলে নিয়ে যেতে পারত? আমি নিজেকে সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না। যতদিন অপরাধীদের ফাঁসি না হবে ততদিন মনের যন্ত্রণা শেষ হবে না।’

তবে এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পরিবারটি পলাতক থাকায় তাঁদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। বাড়িতে গিয়েও দরজা তালাবদ্ধ পাওয়া গেছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    মাদারগঞ্জে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

    বাস চাপায় অটোরিকশার ২ যাত্রী নিহত

    ভিজিএফের ১২৭ বস্তা চাল জব্দ, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন শিগগির

    পরিবারের অমতে বিয়ে, জন্মদিন উদ্‌যাপনের আশ্বাসে এনে খুন

    বুথে ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, খুনিকে ধরিয়ে দিল জনতা

    বেকায়দায় নিম্নমধ্যবিত্ত

    ভেন্টিলেশনে সালমান রুশদি, কথা বলতে পারছেন না

    আষাঢ়ে নয়

    তুইও মরবি, আমাদেরও মারবি

    নতুন পরিচয়ে সোহানা সাবা

    তারেক মাসুদ ছিলেন স্বপ্নের নায়ক

    বোনদের নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা অক্ষয়ের