Alexa
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

সেকশন

epaper
 

চাকরিচ্যুত হচ্ছেন স্বর্ণসহ আটক বিমানের কেবিন ক্রু

আপডেট : ২২ জুন ২০২২, ২০:১৮

বিমানের কেবিন ক্রু ফ্লোরা। ফাইল ছবি সৌদিতে স্বর্ণসহ আটক বিমানের কেবিন ক্রু ফ্লোরাকে চাকরিচ্যুত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ১৩ জুন ফ্লাইটে ওঠার আগমুহূর্তে তিন কোটি টাকার সোনা, বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রাসহ তাঁকে আটক করে সৌদি পুলিশ। এ কারণে বাধ্য হয়ে ফ্লোরাকে ছাড়াই দেশে ফিরে আসে বিমানের ফিরতি ফ্লাইট। এ ঘটনায় তাঁকে গ্রাউন্ডেড করা হয়েছে। বিমানের করা তদন্ত কমিটি ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় এই কেবিন ক্রুকে চাকরিচ্যুত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

আজ বুধবার রাতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের (গ্রাহক সেবা) পরিচালক মো. ছিদ্দিকুর রহমান আজকের পত্রিকাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘কেবিন ক্রু ফ্লোরাকে ইতিমধ্যে আমরা গ্রাউন্ডেড করেছি। তাঁর অপরাধের জন্য তাঁকে সর্বোচ্চ শাস্তি চাকরিচ্যুত করা হবে। তাঁর অপরাধের দায় বিমান নেবে না।’ 

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে, সৌদি কারাগার থেকে ফ্লোরাকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে। সৌদি পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিমানের ঢাকাগামী ফ্লাইট বিজি ০৩৪০-এর ফ্লাইট পার্সার হিসেবে দায়িত্ব ছিল ফ্লোরার। রিয়াদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানে ওঠার আগমুহূর্তে সৌদি পুলিশ জানতে পারে তাঁর লাগেজে বিপুল পরিমাণ সোনা ও বৈদেশিক মুদ্রা আছে। এরপর পুলিশ লাগেজ তল্লাশি করে প্রায় ৩ কোটি টাকা সমমূল্যের সোনা উদ্ধার করে। এসব সোনার কাগজপত্র দেখতে চাইলে ফ্লোরা তা দেখাতে পারেননি। এ কারণে তাঁকে আটক করা হয়। পরে বিমানের ফ্লাইটটি তাঁকে ছাড়াই ঢাকার উদ্দেশে রওনা করে। সিভিল অ্যাভিয়েশন আইন অনুযায়ী বিমানের এ ধরনের ফ্লাইটে ১০ জন কেবিন ক্রু থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু ফ্লোরা আটক হওয়ায় পাইলট আইন লঙ্ঘন করে ৯ জন ক্রু নিয়ে ঢাকায় আসে। এ ঘটনায় বিমানকে মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানার শিকার হতে হবে। 

এর আগে কিছুদিন আগে সোনাসহ আটক হয়েছিলেন বিমানের আরেক কেবিন ক্রু রুহুল আমিন শুভ। 

সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবু সালেহ মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন, সোনা চোরাচালানের ঘটনায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের কর্মীরাও কম-বেশি জড়িত। তবে তাঁর দাবি, নানা পদক্ষেপে চোরাচালান এখন অনেক কমে এসেছে। 

চোরাচালান বা অনিয়মে যুক্ত হলে বিমানকর্মীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে আবু সালেহ মোস্তফা কামাল বলেন, ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ২০২টি বিভাগীয় মামলা হয়েছে। এর মধ্যে শাস্তি হয়েছে ১৭৮ টিতে। এসব মামলায় চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে ৫২ জনকে। তাঁদের মধ্যে ১৩ জন স্বর্ণ চোরাচালানের বিভিন্ন মামলার সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    খাদ্যাভ্যাস ঠিক থাকলে হাসপাতালে যেতে হয় না: আরেফিন সিদ্দিক

    উন্নয়ন ফি নিজের কাছে রাখায় ঢাবি কর্মকর্তার পদাবনতি

    পাকুন্দিয়া পৌরসভার প্রায় ১৭ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

    করোনা সংক্রমণ বাড়ায় অনলাইন ক্লাসে ফিরছে বুয়েট

    ইঞ্জিন কেনায় দুর্নীতির অভিযোগে রেল ভবনে দুদকের অভিযান

    শিক্ষক হত্যা, স্কুলের অ্যাডহক কমিটি স্থগিত

    বাইডেনের চোখে সব নষ্টের গোড়া পুতিন

    ব্র্যাক ব্যাংক ও জেডটিই করপোরেশনের মধ্যে চুক্তি

    বড় কোনো পরিবর্তন ছাড়াই জাতীয় সংসদে বাজেট পাস

    ‘বিপজ্জনক পণ্য’ পরিবহনে অনীহা, দেশে কাঁচামাল সংকটের আশঙ্কা

    নীল সন্ধ্যার গজল

    বন্যাকবলিত এলাকায় আলোক হেলথ কেয়ারের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প