Alexa
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

দুই থাপ্পড়ে অস্থির ঢালিউড

দুই থাপ্পড়ের ঘটনা নিয়ে উত্তাল ঢাকাই সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি। প্রথম ঘটনার কেন্দ্রে ওমর সানী ও জায়েদ খান। ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে জায়েদকে থাপ্পড় মারেন ওমর সানী। তখন জায়েদ পিস্তল বের করে সানীকে গুলি করার হুমকি দিয়েছেন— এমনটাই অভিযোগ। দ্বিতীয় ঘটনা ‘তালাশ’ সিনেমার প্রমোশনাল অনুষ্ঠানে। অভিনেতা আদর আজাদ উত্তেজিত হয়ে থাপ্পড় মারেন আরেক অভিনেতা যোজন মাহমুদকে। দুটি ঘটনা নিয়ে গতকাল দিনভর আলোচনা-সমালোচনায় মুখর ছিল সিনেমাপাড়া।

আপডেট : ১৩ জুন ২০২২, ১৫:২১

ওমর সানী ও জায়েদ খান। ঘটনা ১: সানী ভার্সাস জায়েদ
গত শুক্রবার রাতের ঘটনা। রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে চলছিল অভিনেতা-প্রযোজক ডিপজলের ছেলে সৌমিকের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। ঢাকাই সিনেমার বিশিষ্ট ব্যক্তিরা আমন্ত্রিত ছিলেন অনুষ্ঠানে। জায়েদ খানও ছিলেন। কিছুক্ষণ পর যান ওমর সানী। সেখানে গিয়েই জায়েদকে থাপ্পড় মেরেছেন সানী। এরপরই জায়েদ পিস্তল বের করে সানীকে গুলি করার হুমকি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সানী।

মৌসুমীর প্রতি অসম্মানজনক আচরণ করা এবং বিভিন্ন সময় বিরক্ত করায় জায়েদ খানকে থাপ্পড় মেরেছেন বলে জানিয়েছেন ওমর সানী। তিনি বলেন, ‘আমি ততক্ষণ নীরব থাকি যতক্ষণ পর্যন্ত আমার আত্মসম্মানে আঘাত না লাগে। সে (জায়েদ খান) দীর্ঘদিন ধরে আমার বউকে (মৌসুমী) ডিস্টার্ব করছে। একজন হাজবেন্ড হিসেবে আমার কাছে মনে হয়েছে, এটার প্রতিবাদ করা উচিত। সে কারণে অনুষ্ঠানে সবার সামনে ওকে থাপ্পড় মেরেছি। আমি যে কাজটি করেছি, ঠিকই করেছি।’

কয়েক মাস আগে শিল্পী সমিতির নির্বাচনে এক প্যানেলে লড়েছেন জায়েদ খান ও মৌসুমী। ‘সোনার চর’ সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয়ও করেছেন সানী, জায়েদ ও মৌসুমী। তাঁদের মধ্যে সুসম্পর্ক রয়েছে বলেই মনে করা হতো। এ প্রসঙ্গ তুলতেই ওমর সানী বলেন, ‘নির্বাচন, প্যানেল এগুলো ভিন্ন বিষয়। আমার কাছে আমার পরিবারের সম্মানটাই বড়। আমার স্ত্রীর অসম্মান হলে সেটা আমি কোনোভাবেই মেনে নেব না।’

ওমর সানী আরও জানিয়েছেন, জায়েদ খানের এমন আচরণের জন্য তিনি শিল্পী সমিতিতে অভিযোগ জানাবেন। এমনকি নিজের জীবনের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনে থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন।

তবে পুরো ঘটনা অস্বীকার করেছেন জায়েদ খান। ওই রাতে থাপ্পড় কিংবা গুলির হুমকি দেওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন জায়েদ। তিনি বলেন, ‘এ রকম কিছুই না। সন্ধ্যা থেকে আমি অনুষ্ঠানে গেস্ট রিসিভ করেছি। উনি (ওমর সানী) এসে দুই-তিন মিনিট ডিপজল ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলে চলে গেছেন। উনি তখন মাতাল ছিলেন। আর ওই কমিউনিটি সেন্টারে তো অস্ত্র নিয়ে ঢোকার সুযোগই নেই। বিয়ের অনুষ্ঠানে কেন আমি পিস্তল নিয়ে যাব!’ পুরো ঘটনাটি চক্রান্ত বলে মনে করছেন জায়েদ খান।

অভিনেতা ডিপজল বলছেন, ‘আমার জানামতে এমন কোনো ঘটনাই ঘটেনি। পুরো বিষয়টিই ভিত্তিহীন ও অসত্য। কেউ যদি কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে এ ধরনের কথা ছড়িয়ে থাকে, তাহলে বলব তাঁরা ভালো কাজ করেনি। এত ক্ষুদ্র বিষয় নিয়ে কথা বলাও তো অশোভন। আমি মনে করি, যারা এসব কথা ছড়িয়েছে, তারা চলচ্চিত্রের বদনাম করার জন্য করছে।’

আদর আজাদ, যোজন মাহমুদ ও শবনম বুবলী ঘটনা ২: আদর ভার্সাস যোজন
মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘তালাশ’ সিনেমার প্রচারের জন্য আয়োজন করা হয়েছিল টক শো। সেখানে ছিলেন নির্মাতা সৈকত নাসির, অভিনেতা আদর আজাদ, যোজন মাহমুদ ও অভিনেত্রী শবনম বুবলী। অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে চেয়ার থেকে উঠে এসে যোজনকে চড়-থাপ্পড় ও লাথি মারেন আদর। ঘটনাস্থলের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে গতকাল। তাতে দেখা গেছে, যোজন আদরকে উদ্দেশ করে বলছেন, ‘পাঁচ মিনিট আগেও সে বের হয়ে গেছে। সে তো দায়িত্বশীল না। ক্যারেক্টারের ভেতরেও নাই। দেখেন তার চেহারা।’ তখন আদর উঠে এসে যোজনকে বেধড়ক থাপ্পড় ও লাথি মারেন। তাঁদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন বুবলী। সৈকত নাসির বলেন ক্যামেরা বন্ধ করতে। দর্শকেরা অভিযোগ করছেন, দৃশ্যটি সাজানো। ১৭ জুন মুক্তি পাচ্ছে তালাশ। তার আগে দর্শকদের আকৃষ্ট করার জন্যই এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন অনেকে।

এই সম্পর্কিত পড়ুন:

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    আলহামদুলিল্লাহ বলার ফজিলত

    শুটিং হাউসগুলো কতটা নিরাপদ

    ‘সবকিছুর দাম বাড়লে গরিবের হইবেটা কী’

    মাঠে সক্রিয় হচ্ছেন আব্বাস

    রোহিঙ্গা নীতি-কৌশল আমূল পাল্টানো দরকার

    লোভের হাত থেকে ছাড় পেল না হজও

    তিন ফসলি জমিতে কোনো প্রকল্প নয়, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা

    এক বছর ধরে হল প্রস্তুত, উদ্বোধন না হওয়ায় উঠতে পারছেন না ববির ছাত্রীরা

    বগুড়ায় ছেলের বন্ধুরা খুন করে সাবেক নারী ইউপি সদস্যকে: পুলিশ

    সাতক্ষীরায় দেড় কোটি টাকার সোনার বারসহ যুবক আটক

    ‘পদ বাণিজ্য’: বরগুনা বিএনপির ৪ নেতার বিরুদ্ধে ১০ লাখ টাকা নেওয়ার অভিযোগ 

    গোপালপুরে মেয়রের গাড়িবহরে এমপির সমর্থকদের হামলার অভিযোগ