উপজেলার হোয়ানক টাইম বাজার থেকে তোলা ছবি। ছবি : স্থানীয় সাংবাদিক ফরিদুল আলম দেওয়ান।

কলাগাছে কলাই ধরবে, আর লাউ গাছে লাউ। এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কক্সবাজারের মহেশখালীতে হয়তোবা এ ধারণা বদলাতে চেয়েছেন কেউ কেউ। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ‘কলাগাছে লাউ’ এর একটি ছবি নিয়ে তোলপাড় চলছে।

হয়তো বা কোনো প্রার্থীর সমর্থক অপর প্রার্থীকে ব্যঙ্গ করতেই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। তারপরও এ বিষয়টি এখন মহেশখালীতে মুখরোচক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

বাস্তবে কলাগাছে কলা, আর লাউ গাছে লাউই ধরে থাকে। এ নিয়ম হয়তোবা পাল্টাবে না কোনোদিন। জানা যায়, মহেশখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন আ.লীগের দলীয় মনোনয়ন পান বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোছাইন ইব্রাহীম।

ইব্রাহীম ছাড়াও মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন আরো বেশ ক’জন। এদের মধ্যে মনোনয়ন বঞ্চিত বড় মহেশখালীর সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শরীফ বাদশার কর্মী সমর্থকরা ট্রাকে করে হাজার হাজার কলাগাছ এনে পুরো মহেশখালী প্রধান সড়কের দুপাশে ও হাঁটে বাজারে রোপন করে দেন। কিন্তু তাদের রোপন করা সেই কলাগাছে দেখা গেলো ধরেছে আস্ত দুটি লাউ।

ধারণা করা হচ্ছে, তার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর সমর্থকরাই পাল্টা ব্যঙ্গ স্বরুপ ঘটিয়েছে এ কান্ড। উপজেলার হোয়ানক টাইম বাজারের এ ঘটনা ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।