Alexa
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাঙামাটিতে সাংবাদিক গ্রেপ্তার

আপডেট : ০৮ জুন ২০২২, ০০:০৯

সাংবাদিক ফজলে এলাহী। ছবি: আজকের পত্রিকা  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাঙামাটির সাংবাদিক ফজলে এলাহীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাঙামাটি শহরের কাঁঠালতলি এলাকার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফজলে এলাহী কালের কণ্ঠ, বিডি নিউজ এবং এনটিভির রাঙামাটি জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত। এ ছাড়া তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামভিত্তিক দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং অনলাইন পাহাড় ২৪ ডটকমের সম্পাদক। 

রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার ওসি কবির হোসেন বলেন, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাঙামাটি কোতোয়ালি থানা–পুলিশের কাছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন–২০১৮ এর আওতায় চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালের এক মামলায় প্রসেস নম্বর ৮১৭/২২ মূলে এলাহীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আসে। পরোয়ানা আসার পর কোতোয়ালি পুলিশ তাঁকে কাঁঠালতলি গ্রেপ্তার করেছে। এর বাইরে আমি কিছু জানি না।’ মামলার বাদী নাজনীন আনোয়ার। তিনি রাঙামাটি মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনুর মেয়ে। 

ফজলে এলাহীকে থানায় নেওয়া হলে রাঙামাটির সাংবাদিকেরা ছাড়াও বিভিন্ন পেশার মানুষ থানায় ভিড় করেন। থানায় নিয়ে ফজলে এলাহী রাখা হয় ওসি তদন্ত আফজাল হোসেনের কক্ষে। 

ফজলে এলাহী এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘২০২১ সালে ডিসি বাংলো পার্ক সংক্রান্ত এক নিউজের কারণে নাজনীন আনোয়ার রাঙামাটির আদালতে একটি অভিযোগ দেন। সেখানে প্রথম আসামি ছিলেন তৎকালীন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ মামুন। আমাকে দ্বিতীয় আসামি করা হয়। এটি আদালত তদন্তের জন্য পুলিশের কাছে পাঠায়। পুলিশ তদন্ত রিপোর্ট দেয় এটি নিষ্পত্তি হয়েছে বলে আমি জানি। এর পরে কি করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হলো এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। আমাকে গ্রেপ্তারের সময় পুলিশের সঙ্গে চিনু আপার মেয়ে ছিল। তাঁকে খুব এগ্রেসিভ মনে হয়েছে।’ 

পুলিশ জানিয়েছে, পুলিশের গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার একটি ডিডির কথা উল্লেখ আছে। যার নম্বর ৭৯৫। এ জিডি মূলে চট্টগ্রামের সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন নাজনীন আনোয়ার। যার মামলা নম্বর ২৮ / ২১। রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় ২০২০ সালের ২৮ ডিসেম্বর করা জিডিতে নাজনীন আনোয়ার অভিযোগ করেন, ‘ডিসি বাংলো পার্ক গ্রহীতাকে নিয়ে ফজলে এলাহী প্রচুর মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছেন যা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন–২০১৮ মোতাবেক অপরাধ।’ 
 
কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্মা (ওসি) কবির হোসেন বলেন, ‘আমরা এলাহীকে গ্রেপ্তার করেছি। আজ যেহেতু আদালতে তোলার সময় নেই সেহেতু আগামীকাল (বুধবার) তাঁকে রাঙামাটি আদালতে তোলা হবে। সেখান এলাহীর জামিন মঞ্জুর হবে নাকি চট্টগ্রামে পাঠানো হবে তা বিজ্ঞ আদালত আদেশ দেবেন। আদালতে তোলা না পর্যন্ত এলাহী পুলিশের হেফাজতে থাকবেন।’ 
 
এ দিকে, এলাহীকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবি বুধবার সকাল ১০টায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচির ডাক দিয়েছে জেলার সাংবাদিকেরা। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দীনের জানাজায় হাজারো মানুষ

    না.গঞ্জে রেস্তোরাঁয় ঢুকে গুলির ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

    ডিএমপির ৪ এডিসিকে বদলি

    সিরাজদিখানে আবাসন ব্যবসা নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের ফাঁকা গুলি

    সাতক্ষীরায় দেড় কোটি টাকার সোনার বারসহ যুবক আটক

    যুদ্ধাপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ময়মনসিংহের সুলতান গ্রেপ্তার  

    প্রিমিয়ার লিগের অভিযোগের সিদ্ধান্তে অবাক ম্যান সিটি 

    দশমিনায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মানববন্ধন-বিক্ষোভ, হামলায় আহত ১

    ‘চারদিকে ধ্বংসস্তূপ আর বাঁচার জন্য চিৎকার’

    ফারদিন হত্যা মামলা: বুশরাকে অব্যাহতির সুপারিশ দিয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন

    চুরির অপবাদে মারধরের পর তিন শিশুর চুল কেটে দিলেন মেয়র

    সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দীনের জানাজায় হাজারো মানুষ