Alexa
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

এএফসি কাপ

কেরালাকে হারিয়ে ভাগ্যের দিকে চেয়ে বসুন্ধরা 

আপডেট : ২৪ মে ২০২২, ২১:০৬

কেরালার বিপক্ষে জিতে মোহনবাগান-মাজিয়া ম্যাচের দিকে তাকিয়ে বসুন্ধরা। ছবি: এএফসি পরের পর্বে ওঠার লড়াইয়ে বসুন্ধরা কিংসের সামনে করণীয় ছিল দুটি। প্রথমত, গোকুলম কেরালাকে হারানো। দ্বিতীয়, পরের ম্যাচে এটিকে মোহনবাগান-মাজিয়া স্পোর্টসের পয়েন্ট হারানোর কামনায় থাকা। ২-১ গোলে জিতে এএফসি কাপের ইন্টার জোনালের সম্ভাবনা সুতোয় ঝুলিয়ে এখন ভাগ্যের অপেক্ষায় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা।

জিততেই হবে, এমন একটা কঠিন সমীকরণে আজ যুব ভারতীতে দারুণভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে বসুন্ধরা। এটিকে মোহনবাগানের কাছে আগের ম্যাচে ৪ গোল হজম করা দলটা আজ রক্ষণেও ছিল বেশ সজাগ। চোটে থাকা ডিফেন্ডার তারিক কাজীকে বসিয়ে আক্রমণভাগের দুই খেলোয়াড় মাহবুবুর রহমান সুফিল ও বিপলু আহমেদকে নিচে খেলিয়ে কঠিন এক জুয়াই খেলেছিলেন অস্কার ব্রুজোন। স্প্যানিশ কোচের জুয়াটা কাজে লেগেছেই বলা চলে।

অবশ্য কেরালার আক্রমণে শুরু হয়েছিল ম্যাচটা। আক্রমণাত্মক মানসিকতায় খেলতে থাকা বসুন্ধরার রক্ষণে প্রায় কাঁপন ধরিয়ে দিয়েছিলেন কেরালা মিডফিল্ডার জিতিন সুবরান। ৫ মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে অল্পের জন্য বল পোস্টে ঢোকাতে ব্যর্থ হন জিতিন।

সেই ধাক্কা সামলে দ্রুতই আক্রমণে ফিরেছে বসুন্ধরা। ২৭ মিনিটে গোলটা প্রায় পেয়েই গিয়েছিলেন দলটির ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক রবসন রবিনহো। দ্রুত গতিতে বক্সে ঢুকে জোরের সঙ্গে নেওয়া রবসনের শট লাফিয়ে ঠেকান কেরালা গোলরক্ষক রক্ষিত ডাগার। 

 ২৭ মিনিটে না পারলেও ৯ মিনিট পর ঠিকই সফল রবসন। ৩৬ মিনিটে সোহেল রানার পাস ধরে বক্সের মুখে বাঁ প্রান্তে নিজের প্রিয় জায়গায় বল পান রবসন। গায়ে লেগে থাকা কেরালার এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডান পায়ে নেন কোনাকুনি এক শট। রক্ষিত ডাগার এবার আর ঠেকানোর সুযোগই পাননি। বল তাঁর মাথার ওপর দিয়ে জড়িয়ে যায় জালে। 

চার মিনিট পর আবারও ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিলেন রবসন। এবার বক্সের খানিকটা ভেতরে বল পাওয়ার পর শট নেবেন কি নেবেন না এমন দ্বিধার মধ্যেই পরে যে শটটা নিলেন তাতে বল উড়ে চলে গেছে মাঠের বাইরে। 

বিরতির পরই ব্যবধান বাড়ায় বসুন্ধরা। প্রথম গোল করা রবসন এবার দ্বিতীয় গোলের জোগানদাতা। ৫৪ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের ক্রস থেকে কেরালার দুই ডিফেন্ডারের মাঝখান থেকে বল হেডে জালে পাঠান গাম্বিয়ান স্ট্রাইকার নুহা মারং। 

দুই গোলে এগিয়ে থেকে যখন জয় দেখছে বসুন্ধরা তখনই ম্যাচে ফেরে বসুন্ধরা। বদলি ডিফেন্ডার জসিমের ক্রস থেকে ৭৫ মিনিটে জ্যামাইকান ফরোয়ার্ড জর্ডান ফ্লেচারের শটে পরাস্ত হোন বসুন্ধরা গোলরক্ষক জিকো। 

সমতায় ফিরতে বসুন্ধরার রক্ষণে একের পর এক আক্রমণ করে গেছে কেরালা। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে অল্পের জন্য রক্ষা বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নদের। ফ্লেচারের ফ্রি-কিক গোলরক্ষক জিকোর গ্লাভস ছুঁয়ে প্রতিহত হয় পোস্টে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    গত বছর ইট মেরে এ বছর পাটকেল খেলেন কোহলি

    দামে মেসির ওপরে লাউতারো মার্টিনেজ

    আবারও উইম্বলডনে ফিরতে চান ফেদেরার

    কোথায় পিছিয়ে পড়ে বাংলাদেশ, মাহমুদউল্লাহর ব্যাখ্যা

    হারের ম্যাচে সাকিবের অনন্য রেকর্ড 

    টিভিতে আজকের খেলা (৪ জুলাই ২০২২, সোমবার)

    প্রেসক্লাবে নিজের গায়ে আগুন দিয়ে সাবেক ছাত্রলীগ নেতার আত্মহত্যাচেষ্টা 

    মেগা প্রকল্পগুলো দুর্নীতি আর টাকা পাচারের উৎস: টুকু

    মুকসুদপুরে ইউসিবি ব্যাংকের ২১৮ তম শাখার যাত্রা শুরু 

    শিক্ষক হত্যা: অভিযুক্ত জিতু ও তাঁর বাবার খোঁজ নেয়নি কেউ 

    ঈদের আগে বেতন-বোনাস পরিশোধে জাপা চেয়ারম্যানের অনুরোধ 

    মেঘনা নদীতে লঞ্চঘাট থেকে ১৮০০ লিটার চোরাই ডিজেল জব্দ