Alexa
রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

ঝুঁকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ শঙ্কায় নদীপাড়ের মানুষ

আপডেট : ২৪ মে ২০২২, ১৭:২০

ঝুঁকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ শঙ্কায় নদীপাড়ের মানুষ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে করতোয়া, কাটাখালী ও বাঙালি নদীর ৩৫ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ মেরামত না হওয়ায় ভাঙনের শঙ্কা করছেন পাড়ের মানুষ। এ ছাড়া এরই মধ্যে চরনামাপাড়া ১৫ কিলোমিটারের মধ্যে ২ হাজার ১৫০ মিটার, বিষ পুকুর থেকে নয়াপাড়া বালুয়া পর্যন্ত ৯ কিলোমিটারের মধ্যে ৪৫০ মিটার, কাটাখালী সোহাগী থেকে মালাধর ফতেল্লাপুর ৫ কিলোমিটারের মধ্যে ২ কিলোমিটার এবং বালুয়া বাবুর বাজার থেকে দেওয়ানতলা পর্যন্ত ৬ কিলোমিটারের মধ্যে ৮৫০ মিটার বাঁধ খুবই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ৩৫ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধটি সংস্কার না হলে এবারে বন্যার পানির তোড়ে নদীতে পানি বৃদ্ধি পেলে উপজেলার সাহেবগঞ্জ, মেরী, সাতানাবালুয়া, গোসাইপুর, চানপুর খলসী, সমছপাড়া, পুনতাইর, বালুয়া, বোচাদহ, সোনাইডাঙ্গা, রঘুনাথপুর ও বগুলাগাড়ী এলাকায় বাঁধের ভেঙে যাওয়া অংশ দিয়ে লোকালয়ে পানি ঢুকবে। এতে বসতবাড়িসহ আবাদি জমি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জলমগ্ন হবে।

জানা গেছে, ২০১৮ সালের বন্যায় বগুলাগাড়ী থেকে বড়দহ ঘাট এবং ফুলহার থেকে ত্রিমোহিনী পর্যন্ত বাঁধের বিভিন্ন স্থান বন্যার পানির তোড়ে ভেঙে যায়। মেরামতের জন্য সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এলেও ভেঙে যাওয়া অংশগুলো সংস্কার না করায় প্রতিবছর এসব এলাকার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ ছাড়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের তরফমনু ও চানপুর খলসী পয়েন্টে ভেঙে যাওয়া অংশ দিয়ে পানি ঢুকে প্রতিবছর গোবিন্দগঞ্জ-দিনাজপুর ভায়া ঘোড়াঘাট মহাসড়ক ও পৌর এলাকা পানিতে তলিয়ে যায়।

উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের তরফকামাল গ্রামের আব্দুল ওহেদ জানান, ২০১৮ সালে করতোয়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে যায়। এ কারণে সে সময় গ্রামের অনেক বাড়িঘরের ক্ষতি হয়। ভেসে যায় ঘরের আসবাব। এখন বন্যা হলেই প্রতিবছর বাড়ি ডুবে যায়। বাঁধটি মেরামতের কোনো উদ্যোগ নেই।

  গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফ হোসেন আজকের পত্রিকাকে বলেন, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন ৩৫ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ রয়েছে। বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্টগুলো ইতিমধ্যে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক কার্যালয়কে অবহিত করা হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    ২২ দিনের মধ্যে পরিবারের তিনজনের মৃত্যু

    জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবিতে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ

    আগাম আমন রোপণের ধুম

    গিনেস বুকে নাফিস

    কাউনিয়ার ৩৭ মণের সুলতান দাম ১২ লাখ টাকা

    ব্রহ্মপুত্র গিলে খাচ্ছে বসতভিটা

    শ্রীবরদীতে বিদ্যুতায়িত হয়ে কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু, আহত ১

    ব্যবসায়ী হিলালীর সন্ধান পেতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

    ম্যানইউ ছাড়তে চান রোনালদো

    অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় আসামিদের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

    বিজিবির অভিযানে জুন মাসে ১৩১ কোটি টাকার মাদক ও অবৈধ পণ্য জব্দ

    নড়াইলে শিক্ষককে জুতার মালা পরানোর ঘটনায় সদর থানার ওসি প্রত্যাহার