Alexa
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

৩ দফা পিটিয়ে ছুরিকাঘাতের একদিন পর যুবকের মৃত্যু

আপডেট : ২২ মে ২০২২, ১৬:১৩

 যশোরে ইরিয়ান গাজী (২৫) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আজ রোববার বেলা ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে শনিবার যশোর সদর উপজেলার সুজলপুর গ্রামে তাঁকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। 

নিহত ইরিয়ান গাজী আরবপুর ইউনিয়নের সুজলপুর গ্রামের খোরশেদ গাজীর ছেলে। 

নিহতের বাবা খোরশেদ গাজীর অভিযোগ, এলাকার গোলাম, শরিফ, জাকারিয়া, বুদো, নাহিদ ও লিটনের সঙ্গে ইরিয়ানের বিরোধ ছিল। বিরোধের জেরে ইরিয়ান জীবনের ভয়ে কৃষ্ণবাটি গ্রামে বোনের বাড়িতে পালিয়ে ছিল। শনিবার সন্ন্যাসী গোলাম দলবল নিয়ে কৃষ্ণবাটি গ্রামে অস্ত্রের মুখে তাকে জিম্মি করে এলোপাতাড়ি মারধর করে। পরে সেখান থেকে ইরিয়ানকে অপহরণ করে সুজলপুর জামতলা মাঠে নিয়ে দ্বিতীয় দফা পিটানো হয়। এরপরে জামতলা মোড়ে রাস্তার ওপরে এনে চাকু দিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কোপ দেয়। এ অবস্থায় দুই ঘণ্টা মাটিতে ফেলে রাখা হয়। 

খোরশেদ গাজী আরও বলেন, ‘একপর্যায়ে স্থানীয়দের অনুরোধে ইরিয়ানকে ছেড়ে দিলে আমি যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। সেখানে তাঁর অবস্থা খুবই খারাপ হওয়ায় ডাক্তার তাঁকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। আমরা তাঁকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। আজ সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইরিয়ান মারা যায়।’ 

এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, ‘মারপিটে ইরিয়ানের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটকে অভিযান চলছে।’ 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ভাবিকে কুপিয়ে হত্যার ৯ বছর পর দেবরের যাবজ্জীবন

    নড়াইলে কলেজশিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় আরও একজন গ্রেপ্তার

    শিক্ষককে জুতার মালা পরানোর ঘটনায় ওসির পর ফাঁড়ির ইনচার্জ প্রত্যাহার

    ‘প্রেমিকের ছুরিকাঘাতে’ কলেজছাত্রীর মৃত্যু, আহত ভাই-বাবা

    ডনের মূল্য ২০ লাখ টাকা 

    জেলি ঢোকানো ১ টন চিংড়ি জব্দ, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

    উজবেকিস্তানে সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিশৃঙ্খলায় নিহত ১৮, আহত ২৪৩ 

    ডিএমপিতে তিন থানার ওসিসহ ১৭ কর্মকর্তার বদলি

    কারাগারে দল গঠনের পর মহাসড়কে ডাকাতি করতেন তাঁরা

    প্রথম স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা, দ্বিতীয় স্ত্রীসহ যুবক গ্রেপ্তার 

    আ.লীগ জনগণের সেবক হয়ে থাকতে চায়: কাদের

    সিধু মুসওয়ালা হত্যাকাণ্ডের অন্যতম শুটারসহ গ্রেপ্তার ২