Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

স্কুলশিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষে আহত ৬

আপডেট : ২২ মে ২০২২, ১২:২৯

স্কুলশিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষে আহত ৬ ডুমুরিয়ায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা হয়েছে। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কাঁঠালতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং বাজারের ব্যবসায়ীদের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, কাঁঠালতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তাপস বসাক এবং কাঁঠালতলা বাজারের ব্যবসায়ী শংকর কুমারের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। এর একপর্যায়ে শংকর তাপস বসাককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এর জের ধরে গতকাল শনিবার সকালে বিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্র শংকরের দোকানে গিয়ে তাকে মারপিট করে বিদ্যালয়ে ডেকে নিয়ে আসে।

এ সময় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম আব্দুর রাজ্জাক ছাত্রদের ধমক দিয়ে শংকরকে নিজের কক্ষে বসিয়ে রাখেন। এরপর তিনি কাঁঠালতলা বাজার কমিটির সভাপতি আব্দুল আজিজ শেখ এবং বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক জি এম ফারুক হোসেনকে বিদ্যালয়ে আসার জন্য ফোন করেন। এর মধ্যে বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী বিদ্যালয় অভ্যন্তরে প্রবেশ করে, তাদের মধ্যে আজহারুল ইসলাম নামে জনৈক ব্যবসায়ী প্রধান শিক্ষকের কক্ষে ঢুকে প্রধান শিক্ষক এস এম আব্দুর রাজ্জাককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

এ ঘটনার পরেই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে, তারা লাঠি সোঁটা নিয়ে চুকনগর-খুলনা মহাসড়কে বিক্ষোভ দেখায় এবং ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করতে উদ্ধত হয়। এ সময় ব্যবসায়ীরাও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে, তারাও লাঠি সোঁটা নিয়ে রাস্তায় নেমে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া সংঘটিত হয়। এতে ২ / ৩ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এ সময় বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক জি এম ফারুক হোসেন উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনার পরে ডুমুরিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জি এম ইমদাদুল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে উভয় পক্ষকে নিয়ে প্রধান শিক্ষকের কক্ষে এক বৈঠকে মিলিত হন। সেখানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এস আই হাফিজ, এস আই কামাল হোসেন, এস আই ফরিদুজ্জামান, এস আই শাহিন, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক জি এম ফারুক হোসেন, চুকনগর হাসানিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার শাহিন কাদির, কাঁঠালতলা বাজার কমিটির সভাপতি আব্দুল আজিজ শেখ, সাধারণ সম্পাদক রায়হান হোসেন সহ বিদ্যালয়ের অন্য শিক্ষকেরা। এ সময় জি এম ফারুক হোসেন প্রধান শিক্ষকের ওপর হামলাকারী আজহারুল ইসলামকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানান। বৈঠক শেষে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করার আশ্বাস দিয়ে উভয় পক্ষকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান জানান পুলিশ পরিদর্শক জি এম ইমদাদুল হক।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ৮-১০ ঘণ্টাই থাকে না বিদ্যুৎ

    পিয়ন ছাড়া কেউ নেই অপেক্ষায় সেবাপ্রার্থী

    এখন ব্যস্ততা কামারদের

    সড়কের বুকে ভয়ংকর ক্ষত

    ঘন ঘন লোডশেডিং অতিষ্ঠ জনজীবন

    ‘নতুন কাপড় তো দূরের কথা, পুরান সবই গেছে নষ্ট অইয়া’

    বিএম ডিপো থেকে পণ্যভর্তি অক্ষত কনটেইনার সরানো শুরু

    পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এ মাসেই

    কিশোরী নেতৃত্ব এবং কর্মশালাবিষয়ক সেমিনার

    পুলিশের গুলিতে নিহত জেল্যান্ড ওয়াকারের মরদেহে পরানো হয়েছিল হাতকড়া

    পাবনায় স্বামীর বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

    সিলেটে ব্লগার অনন্ত হত্যা: বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল