Alexa
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত এলাকা

আপডেট : ২০ মে ২০২২, ১৯:১০

বরগুনার বামনা উপজেলার চেঁচান গ্রামে বিষখালী বেড়িবাঁধ ভেঙে ফসলের মাঠে জোয়ারের পানি প্রবেশ করছে। ছবি: আজকের পত্রিকা বরগুনার বামনা উপজেলার বিষখালী নদী তীরবর্তী চেঁচান গ্রামে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। পূর্ণিমার প্রভাবে বিষখালী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রতিনিয়ত জোয়ারে তলিয়ে যাচ্ছে আশপাশের অন্তত ছয়টি গ্রামের ফসলি জমি, মাছের ঘের ও রাস্তাঘাট। ফলে চরম ক্ষতির মুখে পড়েছেন নদীতীরের প্রান্তিক চাষিরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে চেঁচান গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, বিষখালী নদী তীরের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মিত বেড়িবাঁধ ১৫ দিন আগে ভেঙে গেছে। কয়েক দিন ধরে পূর্ণিমার প্রভাবে সৃষ্ট জোয়ারে সেই ভাঙনকবলিত স্থান দিয়ে প্রবল বেগে বিষখালীর পানি ঢুকছে লোকালয়ে। ফলে চেঁচানসহ কাটাখালী, বেবাজিয়াখালী, ঢুষখালী, চালিতাবুনিয়া ও সফিপুর এলাকার ফসলি জমি, মাছের ঘের ও রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেয়ে।

স্থানীয় কৃষকরা জানান, মাঠে এখনো তাঁদের মুগ ডাল, মসুর ডাল ও ভুট্টা রয়েছে। প্রতিনিয়ত দুই বার এসব খেতে পানি ঢুকছে। পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়বেন তাঁরা।

বামনা উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, বিষখালী নদী তীরবর্তী চয়টি গ্রামে প্রায় ১০০ হেক্টর জমিতে এ বছর মুগ ডালের আবাদ হয়েছে। এ ছাড়া ১০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা ও ৩০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন প্রকার সবজির আবাদ করা হয়েছে।

শুধু চেঁচান এলাকাই নয় বিষখালী নদীর জোয়ারে তলিয়ে গেছে উপজেলার ডৌয়াতলা ইউনিয়নের চলাভাংগা, গুদিকাটা, দক্ষিণ কাকচিড়া, রামনা এলাকার দক্ষিণ রামনা, খোলপটুয়াসহ অন্তত ১৫টি গ্রাম।

চেঁচান গ্রামের বাসিন্দা মো. রুস্তুম আলী সরদার বলেন, ১৫ দিন আগে এখানের বাঁধটি ভেঙে যায়। আমরা বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তাঁরা এসে পরিদর্শন করে গেছেন। তবে মেরামতের কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় আমরা এখন পানিতে তলিয়ে যাচ্ছি।

ওই এলাকার বাসিন্দা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, বহুদিন ধরে বাঁধটি ভেঙে গেছে। আমরা পাউবোকে জানিয়েছি। তারা মেরামত না করায় এখন ফসলি জমি, মাছের ঘের এমনকি বসতবাড়ি জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে।

বামনা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী কামরুজ্জামান সগির বলেন, চেঁচান গ্রামের বেড়িবাঁধ দিয়ে বিষখালী নদীর জোয়ারের পানি ঢুকে লোকালয় প্লাবিত হচ্ছে। বিষয়টি বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে। কিন্তু বাঁটি সংস্কারের কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ।

বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী মো. খলিলুর রহমান বলেন, চেঁচান গ্রামের বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়ার বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। খোঁজখবর নিয়ে দ্রুত বাঁধটি সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ‘আমার জায়গা জমি সব গিল্লা খাইছে পদ্মায়’

    রোবট জানাবে চাঁদের খবর

    জিম্বাবুয়েতে পূর্ণ শক্তির দল নিয়েই যেতে চায় বাংলাদেশ

    কমেডি শোতে অপু বিশ্বাস

    মাহাদিয়ার গানে নামিরার ভিডিও নির্দেশনা

    ছোট ছেলের বড় বুদ্ধি

    প্রচলিত মেধাতন্ত্র যেভাবে সবার ক্ষতি করে

    পানিতে ডুবেছে বাদাম খেত, চরাঞ্চলের কৃষক পরিবারে হাহাকার

    ইউসিবির এমডির বিরুদ্ধে ৪০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা

    টিভিতে আজকের খেলা (৬ জুলাই ২০২২, বুধবার)

    ব্রিটেনের নতুন অর্থমন্ত্রী নাদিম জাহাবি 

    ঢাকার খামারগুলোই এখন হাট