Alexa
রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

যে দেশের চিকিৎসা ভালো না, সে দেশ এগোতে পারে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট : ১৯ মে ২০২২, ১৭:৩৬

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ছবি: আজকের পত্রিকা যে দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা ভালো না, সে দেশ এগিয়ে যেতে পারে না বলে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘আরও ভালো সেবা দিতে আমাদের প্রয়োজন গবেষণা। স্বাস্থ্য বিভাগ অনেক এগিয়ে গেছে, সঙ্গে সমস্যাও বেড়েছে।’

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে বিভিন্ন অসংক্রামক রোগ নিয়ে গবেষণা প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 

মোবাইল ও আধুনিক ডিভাইসের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারে মানসিক সমস্যা বাড়ছে বলে জানিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘স্ক্রিনে বেশিক্ষণ থাকার ফলে মানসিক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এটি ব্যয়বহুল চিকিৎসা। এ কারণে হাসপাতালে বেশ চাপ পড়ে, উৎপাদনে প্রভাব পড়ে। এ জন্য মানসিক স্বাস্থ্যনীতি কেবিনেটে পাস হয়েছে।’ 

অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে প্রতিরোধ ব্যবস্থায় জোর দেওয়ার তাগিদ দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দূষণও মৃত্যুর বড় কারণ। এতে করে অসংক্রামক রোগের বিস্তার ঘটছে। একই সঙ্গে দৈনন্দিন জীবনাচারও দায়ী। তাই, আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হবে।’

জাহিদ মালেক বলেন, ‘স্বাস্থ্য সেবায় সংক্রামক ব্যাধি মোকাবিলায় প্রস্তুতি ছিল। আমরা যক্ষ্মা, কলেরা, ডায়রিয়া নিয়ে কাজ করেছি। এসব এখন নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু এ সময়ে অসংক্রামক ব্যাধি বেড়ে গেছে। বর্তমানে বিশ্বে প্রতি বছর ১০ লাখ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে, যার ৭০ ভাগই অসংক্রামক রোগে। যা আজকের গবেষণাপত্রে আমরা জানতে পেরেছি। এসব গবেষণার ফলে নীতি নির্ধারকদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে সুবিধা হয়।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যে দেশের চিকিৎসা ভালো না, সে দেশ এগিয়ে যেতে পারে না। ভালো স্বাস্থ্যসেবার জন্য প্রয়োজন অবকাঠামো, ওষুধ, স্বাস্থ্যকর্মী। আরও ভালো সেবা দিতে আমাদের প্রয়োজন গবেষণা। প্রতিটা দেশ ভিন্ন ভিন্ন সমস্যায় ভোগে। আমাদের ৩৮টি মেডিকেল কলেজ,৫টি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগ অনেক এগিয়ে গেছে সঙ্গে সমস্যাও বেড়েছে।’

স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে সমালোচনাকারীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘করোনার শুরুতে ব্যবস্থাপনা, ভ্যাকসিন, ডাক্তার এমনকি নার্সদের নিয়েও সমালোচনা করেছেন বিরোধীরা। কিন্তু এখন করোনা মোকাবিলা ও ভ্যাকসিন সূচকে বাংলাদেশ যখন বিশ্বে রোল মডেল, দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে এখন তারা চুপসে গেছেন। এখনো বড় বড় প্রজেক্ট নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে, কিন্তু বড় প্রজেক্ট না হলে দেশ কীভাবে এগিয়ে যাবে, আমরাতো তখন ছোটই থেকে যাব।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক আহমেদুল কবির, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক মো. শারফুদ্দিন আহমেদসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অবাধ তথ্য প্রবাহের সুবর্ণ সময় পার করছে বাংলাদেশ: স্পিকার

    রাজধানীতে ডেঙ্গু রোগী হাজার ছাড়াল

    করোনা: শনাক্তের হার কমলেও এক দিনে মৃত্যু ৬

    ডিজিটাল মাধ্যমে প্রান্তিকে পৌঁছাবে স্বাস্থ্যসেবা

    সৌদিতে আরও দুই বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

    দেশে করোনায় এক দিনে ৫ মৃত্যু

    ত্রাণ বিতরণের নামে নাটক করেছে বিএনপি: কাদের

    বিরলে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু 

    বেনাপোল নিয়ে যা বলছে ভারতের হাইকমিশন

    বড়লেখায় নৌকা ডুবে নিখোঁজ ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার  

    অন্যের পক্ষে কোরবানি করার বিধান

    ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে চলছে না মোটরসাইকেল