Alexa
শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

ভারতে হোলসিম সিমেন্ট কিনছে আদানি

আপডেট : ১৫ মে ২০২২, ২৩:৫৬

ভারতের বন্দর ও জ্বালানি খাতের জায়ান্ট এবার সিমেন্ট খাতে। ছবি: টুইটার ভারতে সিমেন্ট খাতেও নিয়ন্ত্রকের আসনে বসতে যাচ্ছে আদানি গ্রুপ। আজ রোববার গ্রুপটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা ১০ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলারে হোলসিম লিমিটেড অধিগ্রহণ করতে যাচ্ছে। অধিগ্রহণ সম্পন্ন হলে স্পষ্টত বন্দর ও জ্বালানি খাতের এই জায়ান্ট এবার সিমেন্ট খাতেও নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করবে।

আদানি গ্রুপের মূল ব্যবসা সমুদ্র বন্দর, বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং কয়লা খনি পরিচালনা। গত দুই বছরে তারা ব্যবসায় ব্যাপক বৈচিত্র্য এনেছে। বিমানবন্দর, ডেটা সেন্টার এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বড় বিনিয়োগ করেছে। এখন সিমেন্ট খাতেও প্রবেশ করল। 

অবশ্য গত বছরই আদানি গ্রুপ দুটি সিমেন্ট কোম্পানি খুলেছে। এর মধ্যে আদানি সিমেন্টেশন লিমিটেড গুজরাটের দাহেজ এবং মহারাষ্ট্রের রাইগড়ে দুটি সিমেন্ট কারখানা স্থাপনের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছিল। অন্য সাবসিডিয়ারিটির নাম আদানি সিমেন্ট লিমিটেড। সেটিই এখন হোলসিম কিনতে যাচ্ছে। 

হোলসিম অধিগ্রহণ সম্পন্ন হলে আদানি হবে ভারতে সিমেন্ট খাতের দ্বিতীয় বৃহত্তম কোম্পানি। ভারতে হোলসিমের দুটি সাবসিডিয়ারি এসিসি লিমিটেড এবং আম্বুজা সিমেন্ট কিনে নেবে বিলিয়নিয়ার গৌতম আদানির বিনিয়োগ জায়ান্ট আদানি গ্রুপ। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    ব্যবসায় নেটফ্লিক্সকে ছাড়িয়ে যেতে নতুন সেবা আনছে ডিজনি

    রিয়ার সঙ্গে আইএফআইসি ব্যাংকের চুক্তি

    ‘নগদ’-এর মাধ্যমে ব্যুরো বাংলাদেশের সঞ্চয় ও কিস্তি পরিশোধ

    চার্জার ফ্যান-লাইটের বাজারে আগুন, লাগাম টানতে দাম নির্ধারণের উদ্যোগ

    ঢাকা-কলকাতা রুটে প্রতিদিন দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে ইউএস-বাংলা

    জিএসপি প্লাস চাইলে মানবাধিকার পরিস্থিতি ঠিক করতে হবে: ইউরোপীয় প্রতিনিধি দল

    একজন শিক্ষক সবসময় মাথা উঁচু করে চলবেন: খুবি উপাচার্য 

    আগামীকাল ‘খ’ ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা

    অভিযুক্ত চিকিৎসকের নিবন্ধন বাতিলের দাবি বিএইচআরএফের 

    পুরোনো প্রেম নিয়ে পন্ত-উর্বশীর কাদা ছোড়াছুড়ি

    ছেলের জন্য ওষুধ কিনতে বের হয়ে ৩ দিনেও ফেরেননি ব্যবসায়ী

    ভিজিএফের ১২৭ বস্তা চাল জব্দ, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন শিগগির