Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

ভারতে পাঠ্যপুস্তকে যৌতুকের গুণাবলি!

আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০২২, ২১:০৫

ভারতে যৌতুকের গুণাবলি বর্ণিত একটি পৃষ্ঠা যুক্ত করা হয়েছে পাঠ্যপুস্তকে। ছবি: রয়টার্স  যৌতুকপ্রথারও গুণাবলি রয়েছে! রয়েছে, তাও আবার সেসব গুণাবলি ফলাও করে নার্সিংয়ের শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়েও ছাপিয়ে পড়ানো হচ্ছে। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতে। সম্প্রতি যৌতুকপ্রথার ‘গুণাবলি ও সুবিধা’ তালিকাভুক্ত করা হয়েছে—এমন একটি বইয়ের পৃষ্ঠার ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। 

পাঠ্যবইয়ে এমন পাঠ দেশটির সর্বস্তরের মানুষকে বেশ অবাক করেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়াও ব্যক্ত করেছেন অনেকে। তাঁরা আশ্চর্য হয়েছেন এই ভেবে যে—এ ধরনের পাঠ্যসূচি তরুণদের কাছে এবং সমাজের কাছে কী ধরনের বার্তা পাঠাচ্ছে। 

 ‘যৌতুকের গুণাবলি’ শীর্ষক ওই অংশটিতে একাধিক তথাকথিত গুণাবলির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। নার্সিং শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠ্য এই বইটির প্রচ্ছদে লেখা রয়েছে, বইটি ভারতীয় নার্সিং কাউন্সিলের পাঠ্যক্রম অনুসারে লেখা হয়েছে। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বইটির ওই অংশের ছবি নিয়ে যাঁরা তীব্র ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন, তাঁদের মধ্যে একজন হলেন শিব সেনা নেত্রী এবং মহারাষ্ট্র রাজ্যসভার এমপি প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী। তিনি মহারাষ্ট্রের শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানকে এ ধরনের বইগুলোকে বাজার থেকে সরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। পাঠ্যক্রমে এমন বিষয়ের উপস্থিতি ‘লজ্জাজনক’ বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

যৌতুকের গুণাবলি বর্ণিত পৃষ্ঠার ছবি। ছবি: টুইটার  বইটির ওই অংশে বলা হয়েছে, যৌতুকে যে ধরনের আসবাব যেমন, রেফ্রিজারেটর, গাড়ি ইত্যাদি দেওয়া হয়—তা নতুন ‘নতুন পরিবার প্রতিষ্ঠায় সহায়ক।’ এ ছাড়া, বইয়ের ওই অংশে যৌতুকের গুণাবলি হিসেবে আরও বলা হয়, মেয়েরা সাধারণত পিতামাতার সম্পত্তির অংশ পায় না তাই যৌতুকের মাধ্যমে তা অনেকটা পূরণ করা যায়।

সেখানে আরও বলা হয়েছে, যৌতুকপ্রথার একটি ‘পরোক্ষ সুবিধা’ হলো—অভিভাবকেরা এখন তাঁদের মেয়েদের শিক্ষিত করা শুরু করেছেন যাতে কম যৌতুক দিতে হয়। 

শেষ পয়েন্ট যে বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে তা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ওই পয়েন্টে বলা হয়েছে, যৌতুকপ্রথা ‘কুৎসিত চেহারার মেয়েদের’ বিয়ে করতে সাহায্য করে। 

ভারত সরকার অনেক আগেই দেশটিতে যৌতুক নিষিদ্ধ করলেও বর্বর এই প্রথা দেশটিতে এখনো রয়ে গেছে। এখনো দেশটিতে যৌতুকের দাবিতে নারীদের হয়রানি, শারীরিকভাবে লাঞ্ছনা, হত্যা এবং আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার মতো খবর নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে দেশটির সংবাদমাধ্যমে। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    সালমান রুশদিকে ছুরিকাঘাতকারী ব্যক্তি গ্রেপ্তার 

    কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাগুলোর পক্ষপাতের অভিযোগে বিক্ষোভ তৃণমূলের

    কলকাতায় ড্রোন উড়িয়ে দুই বাংলাদেশি আটক 

    ভারতের ১৪তম উপরাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিলেন জগদীপ ধনকর

    বিহারে আস্থা ভোটের আগে স্পিকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা 

    গরু পাচার মামলায় গ্রেপ্তার তৃণমূল নেতা অনুব্রত

    ধর্ষণের অভিযোগে খুবি শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

    প্রথম দক্ষিণ এশীয় হিসেবে ‘মিলেনিয়াম লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন স্থপতি মেরিনা

    মাদারগঞ্জে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

    আর্জেন্টিনায় উগ্র সমর্থকদের ক্ষোভের আগুনে পুড়ে ছাই ফুটবলারদের গাড়ি

    দেশে-বিদেশে সর্বত্রই ধিক্কৃত হচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    ভেড়ামারায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২