Alexa
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

সেকশন

epaper
 

সেই হাতি নেওয়া হলো বগুড়ায়

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০২২, ১৬:২৩

লালমনিরহাট থেকে ট্রাকে করে হাতিটি বগুড়ায় নেওয়া হয়। আজকের পত্রিকা লালমনিরহাটে তাণ্ডব চালানো সার্কাসের সেই হাতিটি নেওয়া হলো বগুড়ায় মালিকের বাড়িতে। গতকাল বুধবার দি লায়ন সার্কাস কর্তৃপক্ষ পুলিশের সহযোগিতায় ট্রাকে করে হাতিটি নিয়ে গেছে।

এর আগে গত সোমবার লালমনিরহাটে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক) আয়োজিত শিল্প ও পণ্য মেলায় শিকল ছিঁড়ে তাণ্ডব চালায় হাতিটি। গত মঙ্গলবার এটিকে ট্র্যাঙ্কুলাইজার যন্ত্রের মাধ্যমে অচেতন করে নিয়ন্ত্রণে আনার পর গতকাল বগুড়ার শেরপুরে সার্কাস মালিকের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হলো।

স্থানীয়রা জানান, হাতিটি পায়ের শিকল ছিঁড়ে বেরিয়ে পড়েন শহরে। এ সময় বেশকিছু গাছপালা, কয়েকটি দোকানপাট ভাঙচুর ও ফসলের ক্ষতি করে। পরে মাহুতসহ সার্কাস দলের সদস্যরা একে শান্ত করতে গেলে আরও উত্তেজিত হয়ে রাস্তার গাছপালাসহ মানুষের ওপর আক্রমণ করে। এ সময় একজন আহত হন। পরে সার্কাস দলের সদস্যরা ব্যর্থ হয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে শহরের সাহেবপাড়ায় তাণ্ডব শুরু করে একটি বিলে নেমে পড়ে হাতিটি।

দি লায়ন সার্কাসের মালিক নিরঞ্জন সরকার জানান, হরমোনজনিত কারণে হাতিটি একটু উচ্ছৃঙ্খল হয়ে পড়ে। এ কারণে শিকল ছিঁড়ে লোকালয়ে প্রবেশ দোকানপাট, গাছপালাসহ কিছু ফসলের ক্ষতি করে। মঙ্গলবার দুপুরে হেলিকপ্টারযোগে বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞ ডক্টর তপন কুমার দের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি দল এসে হাতিটিকে অচেতন করে নিয়ন্ত্রণে আনে। ২৪ ঘণ্টা অচেতন ও বিশ্রামে থাকার পর গতকাল দুপুরে হাতিটিকে ট্রাকে করে শেরপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তিন দিনে হাতির চিকিৎসা বাবদ প্রায় চার লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    বিচ্ছিন্ন জনপদ রামুক্যাছড়ি পৌঁছায় না সরকারি সুবিধা

    বিসিএসজট কাটাতে কোন পথে পিএসসি

    মিশ্র বর্জ্যে ঝুঁকিতে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা

    প্রতিমা তৈরি করেই মোহনের সংসারে এসেছে সচ্ছলতা

    ঋণের ফাঁদে গরিব কাঁদে

    মিঠাপুকুরে চোখ ওঠা রোগের প্রাদুর্ভাব

    ভোটে হেরে গিয়ে লেবু চাষ বুলবুলের বাজিমাত

    ধুঁকছে কমিউনিটি ক্লিনিক

    দেড় বছরে রডে মরিচা অতঃপর কাজ শুরু

    আফিফ বলছেন, তাঁদের ওপর চাপ নেই

    ঘরে বাবার লাশ রেখে পরীক্ষার হলে মাকসুদা

    ভাই হত্যার প্রতিশোধ নিতে আকাশকে খুন