Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

শ্রীপুরের দমদমা গ্রাম

পরিযায়ী পাখির কলকাকলিতে মুখর আমাদের বিল

আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৮:২১

গাজীপুরের শ্রীপুরের দমদমা গ্রামে আমাদের বিলের পরিযায়ী পাখিদের বিচরণ। ছবি: আজকের পত্রিকা গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার দক্ষিণে অবস্থিত প্রহ্লাদপুর ইউনিয়নের দমদমা গ্রাম। এ জনপদে রয়েছে চার হাজার মানুষের বাস। জনপদের ফসলি জমিতে কেবল বোরো ধানের চাষ হয়। এই জনপদের মানুষের ঘুম ভাঙে পাখির কিচিরমিচির শব্দে।

শীত, বর্ষাসহ সব ঋতুতেই এই জনপদে অনেক পাখি বসবাস করে। শীতকালে আমাদের বিল নামে দুটি বিলে প্রচুর পরিযায়ী (অতিথি) পাখির আগমন ঘটে। পরিযায়ী পাখি ছাড়াও সারা বছর এ গ্রাম কোকিলের কুহুতান, শালিকের ঝাঁক, ময়না ও দোয়েলের কিচিরমিচির শব্দে মুখর থাকে।

সরেজমিন দেখা যায়, স্থানীয় সাংসদের বাড়ির দুপাশে রয়েছে ৩০০ বিঘা জমির ওপর দুটি বিল। বিল দুটি আমাদের বিল নামে পরিচিত। এ গ্রামে বেশির ভাগ জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়। এক যুগ ধরে দুটি বিলের জমিতে ধান রোপণ হচ্ছে না। শীত আসা শুরু হলে এ দুটি বিলে আসতে শুরু করে হাজারো পরিযায়ী পাখি। সকালের সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে এসব পাখি দল বেঁধে নামতে শুরু করে বিলে। পাখির কলকাকলিতে মুখর হয়ে উঠে দমদমা গ্রামের আশপাশের পরিবেশ।

পাখির কিচিরমিচির শব্দ আর কাছ থেকে পরিযায়ী পাখির কলকাকলি শুনতে এখানে আসে অনেক মানুষ। সকাল ১০টার পর থেকে পাখির সংখ্যা বাড়তে থাকে। বিলের চারপাশে রয়েছে ফসলি জমি। ইতিমধ্যে জমির ফসলের সবুজে ভরে উঠেছে বিলের চারপাশ। সবুজের মাঝে আমাদের বিলে পরিযায়ী পাখিগুলো দেখতে সুন্দর লাগে বলে জানিয়েছেন এখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা।

স্থানীয় বাসিন্দা সাখাওয়াত হোসেন জানান, পরিযায়ী পাখিগুলো হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে চলে আসে আমাদের বিলে। এদের সঠিকভাবে বেঁচে থাকার জন্য গ্রামের মানুষকে সব সময় পরামর্শ দেওয়া হয়। কোনো শিকারি পাখিগুলোকে যেন শিকার করতে না পারে, সে জন্য বিলের আশপাশের মানুষকে সচেতন করা হয়েছে।

সাখাওয়াত হোসেন আরও বলেন, প্রতিদিন হাজারো মানুষ পরিযায়ী পাখি দেখতে ও তাদের কলকাকলি শুনতে এখানে আসেন। পাখিরা গ্রামে এসে ঝাঁক বেঁধে থাকে বলে গ্রামের সৌন্দর্যবর্ধন হচ্ছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ঢাকার খামারগুলোই এখন হাট

    ৮-১০ ঘণ্টাই থাকে না বিদ্যুৎ

    পিয়ন ছাড়া কেউ নেই অপেক্ষায় সেবাপ্রার্থী

    এখন ব্যস্ততা কামারদের

    সড়কের বুকে ভয়ংকর ক্ষত

    ঘন ঘন লোডশেডিং অতিষ্ঠ জনজীবন

    বিএম ডিপো থেকে পণ্যভর্তি অক্ষত কনটেইনার সরানো শুরু

    পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এ মাসেই

    কিশোরী নেতৃত্ব এবং কর্মশালাবিষয়ক সেমিনার

    পুলিশের গুলিতে নিহত জেল্যান্ড ওয়াকারের মরদেহে পরানো হয়েছিল হাতকড়া

    পাবনায় স্বামীর বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

    সিলেটে ব্লগার অনন্ত হত্যা: বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল