Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

মূল সার্ভারে তথ্য নেই জন্মসনদ নিয়ে বিপত্তি

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১৪:০৩

মূল সার্ভারে তথ্য নেই জন্মসনদ নিয়ে বিপত্তি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ভুয়া জন্মসনদের কারণে করোনা টিকার নিবন্ধন করতে পারছে না অনেক শিক্ষার্থী।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সনদ নিয়েও তারা টিকার নিবন্ধন করতে পারছে না। কারণ বিভিন্ন কম্পিউটার দোকান থেকে প্রযুক্তি ব্যবহার করে এসব সনদ তৈরি করা। তাই জন্মনিবন্ধন-সংক্রান্ত মূল সার্ভারে এসব সনদের কোনো তথ্য থাকে না। তা ছাড়া এ কারণে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের স্বাক্ষরও জাল করার ঘটনাও ঘটছে। গত বৃহস্পতিবার সরাইলের অরুয়াইল বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের করোনার দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিবন্ধনের সময় এসব ভুয়া সনদ ধরা পড়ে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে উপজেলা প্রশাসন বলছে, যাঁরা ভুয়া জন্মসনদ তৈরি করছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গেছে, সম্প্রতি জন্মনিবন্ধন-সংক্রান্ত সার্ভার উন্নত করা হয়েছে। এখন জন্মসনদ করতে গেলে বাবা ও মায়ের জন্মসনদসহ ভোটার আইডি কার্ডের নম্বরসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রয়োজন হয়। বাবা ও মায়ের জন্মসনদ না থাকায়, জন্মসনদ তৈরি করতে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে একটি চক্র কম্পিউটারে ফটোশপ ব্যবহার করে জন্মসনদ তৈরি করছে। এসব সনদ অনলাইনে যাচাই-বাছাই করলে নাম ও জন্মতারিখের গরমিল দেখা দেয় বা অন্য নাম চলে আসছে। এর দায়ভার পড়ছে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সচিবদের ওপর।

এ নিয়ে জানতে চাইলে সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের সচিব নারায়ণ চন্দ্র দাস বলেন, চেয়ারম্যান ও সচিবের সই ও সিল নকল করে কিছু অসাধু ব্যক্তি নকল জন্মসনদ বানাচ্ছে। আসলে এ কাজগুলো টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন কম্পিউটার দোকান করেছে।

অরুয়াইল বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী শাপলা আক্তার বলে, ‘আমার ভাই অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদ থেকে আমার জন্মসনদ তৈরি করেন। কিন্তু করোনা টিকার নিবন্ধন করতে গিয়ে দেখি আমার জন্মসনদ অনলাইনে নেই। এখন টিকার নিবন্ধন করতে পারছি না।’

পাকশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের সদ্যবিদায়ী চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে কয়েকবার জানিয়েছি। তিনি বলছেন ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু এখনো ভুয়া জন্মসনদ হচ্ছে। বহু মানুষ প্রতারিত হচ্ছেন। ভুয়া সনদ যাঁরা তৈরি করেন, তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফুল হক মৃদুল বলেন, যাঁরা ভুয়া জন্মসনদ সরবরাহ করেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    প্রচণ্ড গরমে শুকিয়ে গেছে টেমস নদীর উৎসমুখ

    জগদ্ধাত্রী একাই এক শ

    বোনদের নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা অক্ষয়ের

    তারেক মাসুদ ছিলেন স্বপ্নের নায়ক

    বস্তি, দোকানে কোটি টাকা ভাড়া-বাণিজ্য

    সরকারের নজর জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধানের সফরে

    বিসিএস ভাইভা প্রস্তুতি: ভালো উপস্থাপনা জরুরি

    চবির হলে ৪ ছাত্রলীগ নেত্রীর মধ্যে মারামারি, তদন্ত কমিটি গঠন

    ভেন্টিলেশনে সালমান রুশদি, কথা বলতে পারছেন না

    আষাঢ়ে নয়

    তুইও মরবি, আমাদেরও মারবি

    বস্তি, দোকানে কোটি টাকা ভাড়া-বাণিজ্য