Alexa
শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 
সুখবর

৬ বছর পর যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেল কুমির

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১২:৩২

কুমিরটিকে জলাধারে ছেড়ে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে। ছবি: রয়টার্স ছয় বছর ধরে একটি কুমির গলায় মোটরসাইকেলের টায়ার আটকে যন্ত্রণায় ভুগছিল। অবশেষে সেই যন্ত্রণা থেকে গত সোমবার মুক্তি মিলেছে কুমিরটির। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৩ ফুট দৈর্ঘ্যের বিশাল কুমিরটির গলায় ছয় বছর আগে মোটরসাইকেলের টায়ার আটকে যায়। এরপর থেকে কুমিরটি যন্ত্রণা ভোগ করছিল। তবে কুমিরের সুস্থতার জন্য স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্বেগ সত্ত্বেও কুমিরটিকে ধরা একটি চ্যালেঞ্জ ছিল। 

এরপর দ্বীপটির স্থানীয় বাসিন্দা তিলি কুমিরটিকে ধরতে সক্ষম হন। এর আগে তিনি কুমিরটিকে তিন সপ্তাহ ধরে নজরে রাখেন। দুবার ব্যর্থ হয়ে তৃতীয়বারের চেষ্টায় তিনি কুমিরটিকে ধরতে সমর্থ হন। এরপর তিলিই কুমিরটির গলা থেকে টায়ারটি কেটে অপসারণ করেন।

তিলি বলেন, ‘কুমিরটিকে আমি ধরেছি। স্থানীয়দের সাহায্য করার জন্য বলেছিলাম। তবে স্থানীয়রা ভেবেছিলেন কুমিরটিকে ধরতে সক্ষম হব না। এ ছাড়া সবাই ভয়ও পেয়েছিল।’

তিলি জানান, কুমিরটিকে ধরার জন্য তিনি একটি ফাঁদ ব্যবহার করেছেন। এতে টোপ হিসেবে তিনি জীবিত মুরগি ও হাঁস ব্যবহার করেছেন।

এর আগে স্থানীয় প্রশাসন কুমিরটির গলা থেকে টায়ার অপসারণের জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছিল। কিন্তু তিলি বলেছেন, ‘কুমিরটিকে মুক্ত করার জন্য এই পুরস্কার আমাকে কোনো অনুপ্রেরণা জোগায়নি। একটি সাপ বিপদে পড়লেও আমি সেটাকে সাহায্য করব।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সাধারণ ক্ষমা পেলেন স্যামসাংয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট

    থাইল্যান্ডে শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া

    কাবুলে বোমা হামলায় প্রখ্যাত তালেবান আলেম নিহত 

    ‘বদমেজাজি’ ডলফিনের কামড়ে আহত আরও ২ 

    এবার সামরিক মহড়া চালাল তাইওয়ান

    বিহারে আস্থা ভোটের আগে স্পিকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা 

    ভেন্টিলেশনে সালমান রুশদি, কথা বলতে পারছেন না

    আষাঢ়ে নয়

    তুইও মরবি, আমাদেরও মারবি

    নতুন পরিচয়ে সোহানা সাবা

    তারেক মাসুদ ছিলেন স্বপ্নের নায়ক

    বোনদের নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা অক্ষয়ের