Alexa
রোববার, ২৯ মে ২০২২

সেকশন

epaper
 

শান্তিরক্ষা মিশন থেকে র‍্যাবকে বাদ দিতে ১২ মানবাধিকার সংগঠনের চিঠি

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:৪৭

শান্তিরক্ষা মিশন থেকে র‍্যাবকে বাদ দিতে ১২ মানবাধিকার সংগঠনের চিঠি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন থেকে বাংলাদেশের আধাসামরিক বাহিনী র‍্যাবকে বাদ দিতে ১২টি মানবাধিকার সংস্থা চিঠি দিয়েছে। জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রম বিভাগের আন্ডার-সেক্রেটারি জেনারেল জ্যঁ পিয়ের ল্যাক্রোক্সর নামে সংস্থাগুলো গত বছরের ৮ নভেম্বর গোপনে চিঠিগুলো পাঠায়। আজ বৃহস্পতিবার চিঠির বিষয়টি প্রকাশ্যে এল। এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। তবে এখনো পর্যন্ত চিঠির জবাবে কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানায়নি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রম বিভাগ।

চিঠিতে স্বাক্ষর করা সংস্থাগুলোর মধ্যে রয়েছে—অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, এশিয়ান ফেডারেশন অ্যাগেইনস্ট ইনভলান্টারি ডিজঅ্যাপিয়ারেন্স (এএফএডি), এশিয়ান ফোরাম ফর হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ফোরাম-এশিয়া), এশিয়ান হিউম্যান রাইটস কমিশন, এশিয়ান নেটওয়ার্ক ফর ফ্রি ইলেকশনস (এএনএফআরইএল), ক্যাপিটাল পানিশমেন্ট জাস্টিস প্রজেক্ট, সিভিকাস: ওয়ার্ল্ড অ্যালায়েন্স ফর সিটিজেন পার্টিসিপেশন, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ), ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটস, রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস, দ্য অ্যাডভোকেটস ফর হিউম্যান রাইটস এবং ওয়ার্ল্ড অর্গানাইজেশন অ্যাগেইনস্ট টর্চার (ওএমসিটি)। 

এইচআরডব্লিউয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মানবাধিকার সংস্থাগুলো র‍্যাবের নির্যাতনের বিষয়গুলো নথিভুক্ত করেছে। র‍্যাবের নির্যাতন, গুম এবং অন্যান্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞরা। 

রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটসের সভাপতি কেরি কেনেডি বলেন, ‘জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস যদি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষীদের দ্বারা মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ করার বিষয়ে উদ্যোগী হন, তাহলে তিনি র‍্যাবের মতো বিতর্কিত ইউনিটগুলোকে মিশন থেকে বাদ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করবেন। এ ক্ষেত্রে স্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে। এখন জাতিসংঘের সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসেছে।’

এর আগে গত বছরের ১০ ডিসেম্বর র‍্যাবকে গ্লোবাল ম্যাগনিটস্কি হিউম্যান রাইটস অ্যাকাউন্ট্যাবিলিটি অ্যাক্টের অধীনে ‘প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য দায়ী বা এ ধরনের কাজে জড়িত বিদেশি প্রতিষ্ঠান’ হিসেবে মনোনীত করে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার। 

এইচআরডব্লিউয়ের প্রতিবেদন অনুসারে, বাংলাদেশ সরকার এসব অভিযোগ সমাধানে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়ার পরিবর্তে উল্টো যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞাকে অস্বীকার করেছে এবং মানবাধিকার রক্ষাকারী এবং ভুক্তভোগীদের পরিবারের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিয়েছে। গুমের শিকার ব্যক্তিদের পরিবারগুলো জানিয়েছে, কর্মকর্তারা তাঁদের বাড়িতে গিয়ে তাঁদের হুমকি দিচ্ছেন। এমনকি তাঁদের পরিবারের সদস্যদের গুম করা হয়নি, এ ধরনের মিথ্যা বিবৃতিতে স্বাক্ষর করতে বাধ্য করছেন তাঁরা। 

উল্লেখ্য, র‍্যাব এবং র‍্যাবের সাতজন সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞায় থাকা সেই সাতজনের মধ্যে অন্যতম পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) র‍্যাবের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ। ২০১৫ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত র‍্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে তাঁর দায়িত্ব পালনের সময় ১৩৬টি বিচারবহির্ভূত হত্যা এবং ১০টি গুমের ঘটনা ঘটে। তাঁর অধীনে থাকা কর্মকর্তারাই এসব কাজ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    চীনকে ঠেকাতে ‘সামুদ্রিক নজরদারি’র পরিকল্পনা কোয়াডের 

    ইউক্রেনে সহায়তার আগে স্কুলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে: ট্রাম্প

    টেক্সাসে হামলার ভয়ংকর অভিজ্ঞতা শোনাল ১১ বছরের সেরিলো

    টেক্সাসের ঘটনায় ‘ভুল’ স্বীকার পুলিশের

    ‘কীভাবে স্বামীকে হত্যা করবেন’ উপন্যাসের লেখিকা স্বামী হত্যায় দোষী সাব্যস্ত

    টেক্সাসে নিহত স্কুলশিক্ষিকার ‘শোকে’ স্বামীর মৃত্যু

    দেখে নিন লিভারপুল-রিয়াল ফাইনালের একাদশ

    বিদেশে প্রশিক্ষণে গিয়ে উধাও কনস্টেবল, উৎকণ্ঠায় বাবা-মা

    ট্র্যাকিং সিস্টেম থেকে একের পর এক উধাও হচ্ছে রুশ প্রমোদতরী

    বিধবা নারীকে বাজারে প্রকাশ্যে লাঠিপেটা, যুবক গ্রেপ্তার

    বোরহানউদ্দিনে ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার-ফার্মেসিতে অভিযান, ৭৭ হাজার টাকা জরিমানা

    ফরিদপুরে অবৈধ ২০ ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কার্যক্রম বন্ধ