Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

মুরগির খামারে স্বাবলম্বী দম্পতি

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:০৪

বানিয়াচংয়ে জুয়েল ও মাহমুদা দম্পতির মুরগির খামার। আজকের পত্রিকা হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে মুরগির খামার করে পরিবারে সচ্ছলতা এনেছেন জুয়েল ও মাহমুদা দম্পতি। একসময় শখের বশে তাঁরা মুরগি পালন করতেন। পরে সামান্য কিছু অর্থ নিয়ে ব্যবসা শুরু করে আজ স্বাবলম্বী। এ দম্পতি প্রমাণ করেছে ইচ্ছাশক্তি আর শ্রম দিয়ে দারিদ্র্যের অবসান ঘটানো সম্ভব।

জুয়েল মিয়া বানিয়াচং উপজেলার উত্তর-পশ্চিম ইউনিয়নের বাসিন্দা। তিনি বলেন, ‘অল্প টাকা নিয়ে ব্যবসা শুরু করি। একসময় আর্থিক অনটনে থাকলেও তা কাটিয়ে উঠতে পেরেছি। স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে কাজ করলে দারিদ্র্য কাটিয়ে ওঠা সম্ভব। আমরা মুরগির খামারে স্বাবলম্বী হয়ে একটি গরুর খামারও দিয়েছি।’

জুয়েল মিয়া আরও বলেন, ১ হাজার ৫০০ মুরগি রয়েছে খামারে। বর্তমানে মুরগির বাচ্চা ও খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় লাভের পরিমাণ কমে গেছে। আগে প্রতিটি মুরগির বাচ্চার দাম ছিল ১৫-২০ টাকা। বর্তমানে ৩৫-৪৫ টাকা। সরকার বাচ্চা ও খাবারের দাম না কমালে ব্যবসায়ীরা লাভের পরিবর্তে ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। প্রতি কেজি মুরগির দাম বর্তমানে ১৪০-১৪৫ টাকা।

এদিকে ভাইরাসজনিত কারণে খামারে অনেক মুরগি মারা যাওয়ায় হতাশায় রয়েছেন তাঁরা। সরকারি সহায়তা ও ভর্তুকি পেলে অনেক উপকৃত হবেন বলে জানান তিনি।

জুয়েল মিয়ার স্ত্রী মাহমুদা আক্তার বলেন, ‘সাংসারিক কাজের পাশাপাশি মুরগির খামার দেখভাল করি। খামার দিয়ে আর্থিক সচ্ছলতা ফিরে এলেও বর্তমানে লোকসানে রয়েছি। ভাইরাসে অনেক মুরগি মারা গেছে।’

এদিকে উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বলছে, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরে প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর সরকারি ঋণ নেওয়ায় খামারের পরিসর আরও বাড়াতে পারবে এ দম্পতি।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জাফর ইকবাল চৌধুরী বলেন, মুরগি পালনের জন্য উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে প্রশিক্ষণ নিতে পারবে এ দম্পতি। এতে ব্যবসার পরিসর আরও বাড়াবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ৮-১০ ঘণ্টাই থাকে না বিদ্যুৎ

    পিয়ন ছাড়া কেউ নেই অপেক্ষায় সেবাপ্রার্থী

    এখন ব্যস্ততা কামারদের

    সড়কের বুকে ভয়ংকর ক্ষত

    ঘন ঘন লোডশেডিং অতিষ্ঠ জনজীবন

    ‘নতুন কাপড় তো দূরের কথা, পুরান সবই গেছে নষ্ট অইয়া’

    বিএম ডিপো থেকে পণ্যভর্তি অক্ষত কনটেইনার সরানো শুরু

    পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এ মাসেই

    কিশোরী নেতৃত্ব এবং কর্মশালাবিষয়ক সেমিনার

    পুলিশের গুলিতে নিহত জেল্যান্ড ওয়াকারের মরদেহে পরানো হয়েছিল হাতকড়া

    পাবনায় স্বামীর বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

    সিলেটে ব্লগার অনন্ত হত্যা: বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল