Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

মানুষ ভোট দেয় একজনকে, ফলাফলে ঘোষণা হয় অন্যজনের নাম: জি এম কাদের

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:২২

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের। ফাইল ছবি দেশে ফলাফল পরিবর্তনের নির্বাচন চালু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি রাষ্ট্রক্ষমতায় গিয়ে প্রথমে ভোটারবিহীন নির্বাচন, পরে খুনোখুনির নির্বাচন, এখন ফলাফল পরিবর্তনের নির্বাচন কায়েম করেছে। মানুষ ভোট দেয় একজনকে, ফলাফলে ঘোষণা হয় অন্যজনের নাম।’ 

আজ শনিবার বনানীতে জাপার চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। 

দেশের প্রধান দুই দলের সমালোচনা করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পদত্যাগ করার পর আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতৃত্বে দেশে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একটি দল রাষ্ট্রক্ষমতায় এসে দেশকে দুর্নীতিতে চাম্পিয়ন করেছে। অন্য দলটি এসে পরপর চারবার দেশকে দুর্নীতিতে বিশ্ব চাম্পিয়ন করেছে। আবার একটি দল বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড শুরু করেছে। অন্য দলটি বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডে দেশকে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন করেছে। একটি দল ভোট ডাকাতি শুরু করেছে। অন্য দল ক্ষমতায় এসে নির্বাচন কমিশনকে রাবার স্ট্যাম্প বানিয়েছে। রাবার স্ট্যাম্প নির্বাচন কমিশন হলে কেউ আর নির্বাচনে যাবে না। রাজনৈতিক দল থাকবে না, দেশে রাজনীতিও থাকবে না।’ 

‘দেশের মানুষ এমন পরিস্থিতি থেকে মুক্তি চায়’ মন্তব্য করে জি এম কাদের বলেন, দেশের মানুষ আর আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে চায় না। মানুষ আবারও জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় দেখতে চায়। জুলুম, দুর্নীতি ও দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেতে দেশের মানুষ জাতীয় পার্টিকে প্রত্যাশা করছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    যুক্তরাজ্যপ্রবাসী জাপার কেন্দ্রীয় নেতার মৃত্যু

    ইভিএমে টেকনিক্যাল সমস্যা হতেই পারে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী 

    দেশে মুখ বন্ধ রাখলেও, বিদেশিদের রাখা যাবে না: রিজভী 

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত