Alexa
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচন

প্রস্তুতি শেষ, কাল ভোট

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১২:৪৬

 টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল রোববার। জেলায় প্রথমবারের মতো ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে। এ নিয়ে ভোটারদের মাঝে কিছুটা অস্বস্তি দেখা দেয়। তবে গতকাল শুক্রবার দিনভর ভোট কেন্দ্রগুলোতে মক ভোটিং করাতে ভোটারদের অস্বস্তি অনেকটাই কমেছে বলে মনে করছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা। এদিকে শেষ হয়েছে নির্বাচনী প্রচার। আসনটিতে পাঁচজন প্রার্থী থাকলেও আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীর মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে রয়েছে ভোটারদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ উপনির্বাচনে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খান আহমেদ শুভ (নৌকা), জাতীয় পার্টির জহিরুল হক জহির (লাঙল), বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী (হাতুড়ি), বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির রুপা রায় চৌধুরী (ডাব) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল ইসলাম নুরু (মোটর গাড়ি)।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাতে ও গতকাল শুক্রবার শেষ মুহূর্তের প্রচারে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থী ও সমর্থকেরা। জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ প্রকাশ করছেন সবাই। অপরদিকে নির্বাচনের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গতকাল শুক্রবার থেকে মাঠে নেমেছে চার প্লাটুন বিজিবি। নির্বাচনের দিন প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ এবং আনসার মিলিয়ে ১৭ থেকে ১৮ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। একই সঙ্গে র‍্যাব এবং ডিবির টিমও কাজ করবে। এ ছাড়া প্রতিটি ইউনিয়নে পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্স ও একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানা গেছে।

নির্বাচনের বিষয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী খান আহমেদ শুভ, জাতীয় পার্টির প্রার্থী জহিরুল ইসলাম জহির, কংগ্রেসের রুপা রায়, স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল ইসলাম নুরু ও ওয়ার্কার্স পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী (হাতুড়ি) সবাই একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন প্রত্যাশা করছেন।

নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এএইচএম কামরুল হাসান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণ করতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ভোটারদের ইভিএমে ভোটের অস্বস্তি দূর করতে মক ভোটিং করা হয়েছে। আজ শনিবার বেলা সাড়ে এগারোটা থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ইভিএম মেশিন পাঠানো হবে। এ ছাড়া পুরো নির্বাচনী এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্ত সংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। আশা রাখি একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৬ নভেম্বর স্থানীয় সাংসদ একাব্বর হোসেন মারা গেলে আসনটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। আগামী রোববার এ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৪০ হাজার ৩৭৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ৫০১ জন, নারী ভোটার ১ লাখ ৬৯ হাজার ৭৮ জন। রয়েছেন পাঁচজন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার। মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১২১ টি। আর নির্বাচন ভোট কক্ষ রয়েছে ৭৫৬ টি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    তিন বছরের কাজ শেষ হয়নি এগারোতেও

    তিন বছরেও নিজস্ব ভবন হয়নি শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের

    আবারও টালিউডে মোশাররফ

    ছোট্ট ক্যারিয়ারে অনেক প্রাপ্তি

    বর্জ্যে বেহাল পুরান ঢাকার বাংলাদেশ মাঠ

    আইপিএলের নিলামে সাকিব-মোস্তাফিজের ভিত্তিমূল্য ২ কোটি রূপি

    একের সঙ্গে হরেক

    আজকের রাশিফল

    নবজাতকের র‍্যাশ হলে

    বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলবে ইংল্যান্ড, ভনের ভবিষ্যদ্বাণী