Alexa
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

৪ বছর ধরে কমিটি নেই নবীনগর ছাত্রলীগের

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৪:৩৫

৪ বছর ধরে কমিটি নেই নবীনগর ছাত্রলীগের ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগের দীর্ঘ ৪ বছর ধরে কমিটি নেই। এতে উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে সংগঠনটির কার্যক্রম স্থবির হয়ে আছে। ফলে নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টির পথও থমকে গেছে। পাশাপাশি সাবেক কমিটির পদে থাকা নেতারাও হতাশ হয়ে অনেকেই এখন রাজনীতির হাল ছেড়ে বিভিন্ন পেশায় জড়িয়ে যাচ্ছেন।

২০১৮ সালে জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ শোভন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগ, পৌর ছাত্রলীগ, নবীনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় এবং সংগঠনের কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয়তা আসায় সংগঠনের কার্যক্রমকে গতিশীল করার লক্ষ্যে বর্তমান কমিটিগুলোকে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হল। এখন পর্যন্ত নবীনগরে উপজেলায় ছাত্রলীগের কোনো কমিটি হয়নি। সর্বশেষ বিদায়ী কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আব্দুল্লাহ আল রুমান, সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আব্দুল্লাহ আল মামুন।

নবীনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য তাহসীন ভূঁইয়া রুম্মান বলেন, ‘দীর্ঘদিন যাবৎ ছাত্রলীগের কমিটি নেই। এতে নতুন নেতৃত্ব তৈরি হচ্ছে না। আমরা চাই অতি দ্রুত নবীনগরে সকল ইউনিটে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হোক।’

পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক সাইফুর রহমান রকি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের কমিটি নেই। ফলে আমাদের কর্মীরা হতাশ হয়ে অনেকেই বিদেশ চলে যাচ্ছেন। রাজনীতির হাল ছেড়ে বিভিন্ন পেশায় জড়িয়ে যাচ্ছেন। আমরা চাই দ্রুত কমিটি গঠন করা হোক এবং প্রকৃত ছাত্রদের দিয়ে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হোক।’

নবীনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের ১ নম্বর সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক নাছির উল্লাহ বলেন, ‘স্থানীয় গ্রুপিং এবং কোন্দলের কারণে ছাত্রলীগের কমিটি হচ্ছে না। আমরা চাই গ্রুপিং-কোন্দল বাদ দিয়ে নবীনগরে ত্যাগীদের মূল্যায়ন করে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হোক।’

উপজেলা ছাত্রলীগের সর্বশেষ বিদায়ী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ খলিলুর রহমান বলেন, ‘সিনিয়র নেতৃবৃন্দের অনৈক্য এবং অছাত্রদের নেতৃত্বে আসার অপচেষ্টার ফলে উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠনে বিলম্ব হচ্ছে বলে আমি মনে করি। তবে আশাবাদী অতি দ্রুত এর সমাধান হবে।’

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোহাম্মদ আবু সাঈদ বলেন, তিন বছর আগে নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ফয়জুর রহমান বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম ও বর্তমান স্থানীয় সাংসদ এবাদুল করিম বুলবুল একটি কমিটির সুপারিশ করে জেলাতে পাঠিয়েছেন। জেলা ছাত্রলীগ এখন পর্যন্ত এ কমিটি ঘোষণা করেননি। তাই উপজেলা ছাত্রলীগের অবস্থান খুবই দুর্বল। দ্রুত উপজেলা কমিটি ঘোষণা করে নিষ্ক্রিয় ছাত্রলীগকে প্রাণ ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানাই।’

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল বলেন, ‘কিছুদিনের মধ্যেই আমরা নবীনগর উপজেলায় ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেব। উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    দোয়া সফলতার হাতিয়ার

    ফ্যাশনেবল ফিউশন

    নিরাপদ অভিবাসন নিয়ে কর্মশালা

    ঘাটাইলে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ৩ অবৈধ ইটভাটা

    জরাজীর্ণ টিনের ঘরে ৩৮ বছর পাঠদান

    ৫ ইউপিতে আওয়ামী লীগের ৭ বিদ্রোহী

    দুর্নীতি রোধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে ডিসিদের সহযোগিতা চায় দুদক

    ৪ জেলায় বইছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, তিন বিভাগে বৃষ্টির আভাস

    ৭০০ এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট চালুর মাইলফলক অর্জন করল ব্র্যাক ব্যাংক

    জীবন বীমার এমডিসহ দুজনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

    জাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ তদন্তে ইউজিসি, শিক্ষক সমিতির আপত্তি

    ওমিক্রন নিয়ে সংশয়ের মূল বর্ণবাদ, দাবি দ. আফ্রিকান বিজ্ঞানীদের