Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

সংঘর্ষের জেরে বাস চলাচল বন্ধ

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১২:৩৯

ইজিবাইক-বাস মালিক-শ্রমিক দ্বন্দ্বে বরগুনার আন্তজেলার সব পথে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গতকাল দুপুরে নতুন বাসস্টেশন এলাকা থেকে তোলা ছবি। আজকের পত্রিকা ইজিবাইক-বাস মালিক-শ্রমিক দ্বন্দ্বে বরগুনা-নিয়ামতি সড়কের বিভিন্ন স্থানে একাধিক বাস ও ইজিবাইক ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দুই গ্রুপের ভাঙচুর ও সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর দুপুর ১২টা থেকে আন্তজেলার সব পথে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রী।

জেলা বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সগীর হোসেন বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে বরগুনার মহাসড়কে সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত তিন চাকার যান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে বরগুনা জেলা প্রশাসন। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মহাসড়কে ইজিবাইক ও ব্যাটারিচালিত রিকশা এবং মাহিন্দ্রসহ তিন চাকার যাত্রীবাহী যান চলাচল অব্যাহত রয়েছে।

জানা যায়, শুক্রবার সকাল থেকে বরগুনার সড়কে বাস-শ্রমিক ও ইজিবাইকের চালকেরা বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। সড়কের বিভিন্ন স্থানে একাধিক বাস ও ইজিবাইক ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে এবং দুই পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হন। পরে নিরাপত্তার অজুহাতে সকাল থেকে আন্তজেলার সব সড়কে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন বাসের মালিকেরা। বাস মালিক সমিতির আলটিমেটাম অনুযায়ী শুক্রবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য আন্তজেলা বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।

বরগুনা জেলা বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কবির বলেন, ‘সকালে মহাসড়কে অবৈধ ইজিবাইক ও ব্যাটারিচালিত রিকশা এবং মাহিন্দ্র চলাচল না করার জন্য তাঁদের অনুরোধ করি। আমাদের অনুরোধ না শুনে তাঁরা বরগুনা-নিয়মিত সড়কের বিভিন্ন স্থানে আমাদের পাঁচটি বাস ভাঙচুর করেন এবং বাস চালকসহ ১৫ জন শ্রমিককে আহত করেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।’

বরগুনা-নিয়ামতি সড়কের বদরখালী, ফুলঝুরি ও গৌরিচন্না ইউনিয়ন ইজিবাইক চালক-মালিক সমবায় সমিতির সভাপতি বজলুর রহমান বশির বলেন, ‘আমাদের অন্তত ১০ জন চালক আহত হয়েছেন। যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে অনেকগুলো অটোরিকশায় হামলা করেছে। তারপরও আমাদের অটো চলাচল করছে। নিষেধাজ্ঞার পর আমরা মহাসড়কে খুব একটা উঠি না। তবে যাত্রীদের সুবিধার জন্য অনেক সময় মহাসড়কে উঠতে হয়। এ নিয়ে বাস মালিক শ্রমিকদের এতটা বাড়াবাড়ি করার দরকার ছিল না।’

বরগুনা জেলা বাস মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সগীর হোসেন বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন ধরেই মহাসড়কে অবৈধ ইজিবাইক ও ব্যাটারিচালিত রিকশা এবং মাহিন্দ্র চলাচল নিষেধের জন্য জেলা প্রশাসনকে অনুরোধ করে আসছি। আমাদের কোটি কোটি টাকার ব্যবসায় এদের কারণে ধস নেমে পথে বসার উপক্রম এখন। প্রশাসন ব্যবস্থা না নেওয়ায় বাধ্য হয়ে আমরা এদের ঠেকানোর পথ অবলম্বন করছি। তবে শ্রমিকদের বলা হয়েছে যাতে আইন ভঙ্গ না হয়।’

বরগুনার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম তারিকুল ইসলাম বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি সুরাহার জন্য উভয়পক্ষের সঙ্গে কথা চলছে। যাঁরা আইন হাতে তুলে নিয়েছেন, তাঁদের বিচারের আওতায় আনা হবে। শিগগির সবকিছু স্বাভাবিক হবে বলে আশা করছি।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সন্ত্রাস-নাশকতা বড় গুনাহের কাজ

    প্রশাসনের দিকে অভিযোগের তির নৌকার ১০ প্রার্থীর

    আইভীতেই আস্থা অটুট

    সৌন্দর্য উপভোগ করতে এসে ফসলের ক্ষতি

    হুইলচেয়ারে এসে দিলেন ভোট

    শক্তিবর্ধক পানীয়ের দেদার বিক্রি

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত