Alexa
শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

শনিবার দেখা মিলতে পারে রোদের, বাড়বে তাপমাত্রা

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২১:২৮

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) থামবে, দেশের কোথাও কোথাও মিলবে রোদের দেখা, এর মধ্য দিয়ে ১ থেকে ২ ডিগ্রী তাপমাত্রা বাড়তে পারে। ছবি: সংগৃহীত পৌষের শেষ সপ্তাহে তাপমাত্রা তুলনামূলক একটু বেশিই ছিল। এর মধ্য গত কয়েক দিন রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃষ্টি ও কুয়াশাচ্ছন্ন মেঘলা আকাশের কারণে গত দুই-তিন দিন ধরে রোদের দেখা পায়নি অনেকে। তবে শনিবার (১৫ জানুয়ারি) থামবে, দেশের কোথাও কোথাও মিলবে রোদের দেখা, এর মধ্য দিয়ে ১ থেকে ২ ডিগ্রী তাপমাত্রা বাড়তে পারে। আবহাওয়া অফিস বলছে, বৃষ্টি থামার পর দু-তিন দিনের মধ্যে বাড়তি তাপমাত্রা আবার কমতে শুরু করবে। 

আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ আজকের পত্রিকাকে বলেন, সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। আগামীকাল দেশের বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টিপাত হবে, তারপর পুরোপুরি বৃষ্টি কেটে যাবে। দেশের বিভিন্ন এলাকায় মিলতে পারে রোদের দেখাও। তবে পরশু দিন থেকে তাপমাত্রা কমতে থাকবে। উত্তর পশ্চিম অঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। তবে দেশের অন্য অঞ্চল গুলোতে কুয়াশাসহ শীতের তীব্রতা বাড়বে।’ 

আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় হালকা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। মধ্যরাত থেকে নদীর পার্শ্ববর্তী এলাকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রী বাড়তে পারে। 

শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়া ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর টেকনাফে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকায় গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। একইভাবে ময়মনসিংহে ছিল ১৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, চট্টগ্রামে ছিল ১৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সিলেটে ছিল ১৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রাজশাহীতে ছিল ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রংপুরে ছিল ১৩ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, খুলনায় ছিল ১৭ দশমিক ৫ এবং বরিশালে ছিল ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে নোয়াখালীর হাতিয়া ও বরিশালের খেপুপাড়ায় ২ মিলিমিটার। এ ছাড়া ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাঙামাটি, কুমিল্লা, চাঁদপুর ও শ্রীমঙ্গলে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    বঙ্গোপসাগরে ফের লঘুচাপ, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত

    কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের তীর জুড়ে ভাঙন

    কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত, পর্যটকদের সৈকতে না নামার অনুরোধ

    সারা দেশেই বৃষ্টির সম্ভাবনা, অপরিবর্তিত থাকবে দিনের তাপমাত্রা

    লঘুচাপে বাড়বে বৃষ্টির প্রবণতা, কমবে তাপমাত্রা

    গভীর সঞ্চরণশীল মেঘমালা, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত

    আষাঢ়ে নয়

    এ লড়াই এগিয়ে যাওয়ার

    বিতর্কে বিভক্ত ঢাকাই সিনেমা

    শেষযাত্রা

    অসততা

    নিয়ন্ত্রণহীন বাজারে অসহায় বাণিজ্যমন্ত্রী

    অলিম্পিকেও নিষিদ্ধ হতে পারে ভারত