Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

ক্যামেরার লেন্সে বৈমানিকের চোখ, শিকদার আহমেদের আলোকচিত্র প্রদর্শনী

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ০১:৫৭

শিকদার আহমেদের ছবি ভূয়সী প্রশংসা করেন ইউএস-বাংলার এমডি মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন। ছবি: আজকের পত্রিকা

ছিলেন বৈমানিক। ঘুরেছেন দেশে দেশে। উড়োজাহাজ নিয়ে গেছেন ৬০টি দেশের দেড় শ গন্তব্যে। অন্যদের মতো হোটেলে অলস সময় না কাটিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন ক্যামেরা নিয়ে, তুলেছেন ছবি। শখের বশে তোলা সেসব ছবি নিয়ে প্রদর্শনীর আয়োজন করেছেন শিকদার আহমেদ। আজ শুক্রবার বিকেলে আর্মি গলফ ক্লাবে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন। 

সদরঘাটের নৌকা, ইতালির ভেনিস, বগুড়ার লাল আলু, রাতের আইফেল টাওয়ার, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত, রাজশাহীর বরেন্দ্র অঞ্চলের খরা, প্যারিসের এয়ার শো, কেনিয়ার বাঘ থেকে শুরু করে বাংলাদেশের ধানের চাতাল, কুমোর বাড়ির হাঁড়ির ছবিসহ ৬০টি ছবি নিয়ে চলছে প্রদর্শনী। ‘যেখানে পূর্ব মিলিত হয়েছে পশ্চিমে’ শিরোনাম ছবির প্রদর্শনী আগামীকাল শনিবার বিকেল ৪টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। 

প্রদর্শনীর উদ্বোধন করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ছবিগুলো অভূতপূর্ব। এসব ছবির মূল্য অনেক। ছবিগুলো আসলেই ইউনিক। ছবিগুলো দেখার পর মনে হয়েছে আপনি (শিকদার আহমেদ) পৃথিবীর যে কোনো ফটোগ্রাফারের সমতুল্য। শুধু অভাব হচ্ছে আপনাকে তুলে ধরা। আজ থেকে ইউএস-বাংলায় সব প্রতিষ্ঠানের ক্যালেন্ডার আপনার ছবি দিয়ে করা হবে।’ 

প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন। ছবি: আজকের পত্রিকা ইয়াঙ্গুন করপোরেশনে চাকরি করার সময় ছবি তোলা শুরু করেন জানিয়ে শিকদার আহমেদ বলেন, ‘ইয়াঙ্গুনের চেয়ারম্যান অর্ডার শেষ হওয়ার পর বায়ারদের সঙ্গে দেখা করতে যেতাম। সে সময় আমাকে বিশ্বের ১৬০টি গন্তব্যে যেতে হয়েছে। হোটেল বসে না থেকে আমি ক্যামেরা নিয়ে বের হতাম। ফটোগ্রাফি এবং পাইলট কম্বিনেশনটা কেমন যেন মনে হতো। অনেক সময় ল্যান্ড করার পর সবাই যখন হোটেলে গেছে তখন আমি ক্যামেরার ব্যাগ নিয়ে ছবি তোলার জন্য বের হয়েছি। এমন করে করেই ছবিগুলো তুলেছি। আমি রং ভালোবাসি, ছবিতেও তার প্রতিফলন আছে। আমি ছবি সম্পাদনা করি না। ফটোগ্রাফি বেশ কষ্টের ব্যাপার। সারা দিন ছবি তুলে, সারা রাত ট্রাভেল করে আবার অফিস করেছি। বাংলাদেশকে কালারফুল হিসেবে তুলে ধরতে চাই।’ 

ইউএস-বাংলার এমডি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড ফটোগ্রাফি ডে-তে দেখলাম গত দুই দশকে বাংলাদেশের ৯০০ আলোকচিত্রী আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছে। আরেকটা দুর্ভাগ্যজনক জিনিস—বাংলাদেশে সরকারি-বেসরকারি মিলে ১২০টি বিশ্ববিদ্যালয় আছে। ভুটান, নেপাল বাদে দক্ষিণ এশিয়ায় যাদের বেশি সংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয় আছে তার মধ্যে আমাদের এখানে (ফটোগ্রাফি নিয়ে) কোনো ব্যাচেলর ডিগ্রি পড়ানো হয় না। গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে তিন মাসের কোর্স করাতে পারি। আপনার মধ্যে যে জ্ঞান আছে সেটা মানুষের মধ্যে দিয়ে দেবেন।’ 

 ‘করোনার সময় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের আমি আর আহমেদ ভাই (শিকদার আহমেদ) মিলে যুদ্ধ করেছি। বাংলাদেশের বাইরে চেন্নাই, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনামে বিভিন্ন কারণে হাজার হাজার মানুষ আটকে ছিল। তার নেতৃত্বে আমরা তাদের বাংলাদেশে নিয়ে এসেছি। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস দক্ষিণ এশিয়ার সব থেকে উদীয়মান এয়ারলাইনস, এর পথিকৃৎ তিনি। আমি শুধু মালিক হিসেবে তাঁকে নির্দেশনা দেই।’ 

উড়োজাহাজ নিয়ে ৬০টি দেশের দেড়শ গন্তব্যে গেছেন শিকদার আহমেদ, তুলেছেন অসাধারণ সব ছবি। ছবি: আজকের পত্রিকা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসকে প্রতিষ্ঠিত করতে কীভাবে কাজ করেছেন, সে বিষয়েও কথা বলেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তিনি বলেন, ‘সাধারণত আমার খুব বদনাম, আমাকে কেউ দাওয়াত দিলে আমি যাই না। এটার কারণ আছে, কারণ হচ্ছে আমি মনে করি এই পাঁচটা ঘণ্টা আমার প্রয়োজন, আমি যদি আমার প্রতিষ্ঠানে পাঁচ ঘণ্টা সময় দেই তাহলে হয়ত ১৫ জন মানুষের চাকরি হবে বা আরেকটি নতুন প্রতিষ্ঠান দাঁড়াবে। আসলে আমার নেশা কাজ করা।’ 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে শিকদার আহমেদের মা হাসিনা শিকদার বলেন, ‘আপনারা আমার ছেলেকে যে সম্মান দিয়েছেন সে জন্য সকলকে ধন্যবাদ। সন্তানদের সঙ্গে এখন যুক্তরাষ্ট্রে থাকছেন শিকদার আহমেদ। গত বছর নিউইয়র্কে এবং গত মাসে নেপালে নিজের ছবির প্রদর্শনী করেছেন।’ 

দুই দিনের প্রদর্শনীতে পৃষ্ঠপোষকতা করছে লুবনান। লুবনান ট্রেড কনসোর্টিয়াম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হক খান অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। আজকের পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কামরুল হাসান ছাড়াও শিকদার আহমেদের পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনেরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অভিনয়শিল্পী শিমুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত

    মেসিকে টপকে টানা দ্বিতীয়বার ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় হলেন লেভানডফস্কি

    করোনার সঙ্গে ইনফ্লুয়েঞ্জা ইউরোপে ‘টুইন্ডেমিক’

    অভিনয়শিল্পী শিমুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন