Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

নীরবে চলে গেলেন লুপ্ত ধানের সংগ্রাহক

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:০১

বহু লুপ্ত জাতের ধান সংগ্রহ করেছেন ইউসুফ মোল্লা। ছবি: সংগৃহীত ১৯৭৮ সাল থেকে স্থানীয় বিভিন্ন জাতের ধান ও ফসলের বীজ সংরক্ষণ করে আসছিলেন কৃষক ইউসুফ মোল্লা। কৃষিকাজে কখনো রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার করেননি। নিজেই কম্পোস্ট ও জৈব বালাইনাশক তৈরি করে জমিতে প্রয়োগ করতেন। দেশীয় ধানের জাতের সমৃদ্ধ ঐতিহ্য রক্ষা করার জন্য হারিয়ে যাওয়া প্রায় ৩০০ প্রজাতির ধানবীজ সংরক্ষণে রেখেছিলেন।

শুধু সংগ্রহই করেননি, সেই ধান দিয়ে তৈরি করেছেন দেশের একমাত্র ‘ধানবীজ ব্যাংক’ ও ‘ধানবীজ লাইব্রেরি’। ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগের পাশাপাশি কৃষকদের মধ্যে তিনি সেই বীজ বিতরণ করতেন। ধানবীজ ব্যাংকের মাধ্যমে কৃষকদের দিতেন সম্মাননা পুরস্কারও। এসব কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি নিজেও পেয়েছিলেন জাতীয় পরিবেশ পদক। তাঁর কাছ থেকে সংগ্রহকৃত বিলুপ্ত জাতের ধান নিয়ে দেশের নামকরা গবেষণা সংস্থা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা গবেষণা করছেন।

লুপ্ত ধানের সংরক্ষক এই কৃষক ইউসুফ মোল্লা নীরবে চলে গেলেন আজ। শুক্রবার সকালে রাজশাহীর তানোর উপজেলার পাঁচন্দর ইউনিয়নের ধুবইল গ্রামে নিজ বাসভবনে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।

ইউসুফ মোল্লার নিকটাত্মীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল সাড়ে ৭টায় হঠাৎ করেই অসুস্থ বোধ করেন এবং কিছুক্ষণের মধ্যে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। প্রায় ছয় মাস আগে তাঁর ফুসফুসে ক্যানসার ধরা পড়েছিল। কিছুদিন হাসপাতালে থাকার পর বাসায় থেকে চিকিৎসা চলছিল।

আজ বিকেলে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয় এবং মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

এদিকে লুপ্ত ধানের সংরক্ষক কৃষক ইউসুফ মোল্লার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ (ময়না), উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পংকজ চন্দ্র দেবনাথ ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম। 

তাঁরা শোকবার্তায় বলেন, দেশীয় ধানের জাতের সমৃদ্ধ ঐতিহ্য রক্ষা করার জন্য সংগ্রহশালা ও ধানের জাত উন্নয়নে ইউসুফ মোল্লা অবিস্মরণীয় অবদান রেখেছেন। তাঁর সংগ্রহের ধানবীজগুলো দেশের সম্পদ। তাঁর মৃত্যু তানোরের বরেন্দ্র অঞ্চল তথা সারা দেশের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।

কর্মকর্তারা ইউসুফ মোল্লার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    কাক-ফিঙের কবল থেকে রক্ষা পেল লক্ষ্মীপেঁচা

    কমবে শৈত্যপ্রবাহ, বাড়বে তাপমাত্রা

    উত্তরে বইছে শৈত্যপ্রবাহ, দক্ষিণেও বাড়বে শীত

    মাঘের শুরুতে জেঁকে বসবে শীত

    শনিবার দেখা মিলতে পারে রোদের, বাড়বে তাপমাত্রা

    বৃষ্টি কমবে, বাড়বে শীতের তীব্রতা

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত

    কোহলির জায়গা নিতে রাজি বুমরা