Alexa
শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

গলায় ঝুললেও মুখে নেই মাস্ক

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১২:৩১

প্রতীকী ছবি সিলেট নগরীর কদমতলী এলাকা। এখান থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেড়ে যায় বাস। বাসের চালক ও সহকারী থেকে শুরু করে এই এলাকার বেশির ভাগ মানুষের মুখে নেই মাস্ক। কেউ কেউ গলায় ঝুলিয়ে রাখলেও মুখে দিচ্ছেন না।

কেউ সিগারেট টানছেন, কেউ পান চিবুচ্ছেন, কেউ আবার মাস্ক হাতে নিয়ে যাত্রীদের ডাকাডাকি করছেন। একই অবস্থা বাসের যাত্রীদেরও। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখেও চলাফেরা করছেন না কেউই। করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ রোধে সিলেটে বিধিনিষেধ শুরুর দিনেই দেখা গেছে এমন চিত্র।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নগরীর কাঁচাবাজার, মার্কেট, শপিংমল, বাসস্ট্যান্ড এলাকা ঘুরে দেখা যায়, নিয়ম মেনে অনেকেই নিজেদের সঙ্গে মাস্ক রাখলেও ব্যবহার করছেন খুব কম মানুষ। তাঁরা থুতনি, গলা কিংবা বুকপকেটে রেখে দিয়েছেন মাস্ক।

ওমিক্রনের সংক্রমণ রোধে গত সোমবার কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এতে জনসমাগমস্থলে সবাইকে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধানের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনা অনুযায়ী গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে এ বিধিনিষেধ কার্যকর করা হয়েছে।

এদিকে নগরের কাঁচাবাজারগুলোতেও বিধিনিষেধ মানার কোনো বালাই ছিল না। প্রচুর ক্রেতা-বিক্রেতার উপস্থিতি থাকলেও হাতে গোনা কয়েকজন ছাড়া কারও মুখে ছিল না মাস্ক। বয়োবৃদ্ধ অনেককেও মাস্ক পরিধান না করেই ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে।

এ ছাড়া হোটেল-রেস্তোরাঁসহ জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলক সবাইকে মাস্ক পরা ও নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা থাকলেও অনেকেই তা মানছেন না। হোটেল, রেস্তোরাঁ, বাজারে গেলে সবাই গাঁ-ঘেঁষে দাঁড়ান। অপরদিকে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমরানের সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারের দেওয়া ১১ দফা নির্দেশনা যথাযথভাবে বাস্তবায়নে প্রশাসনের প্রতি নির্দেশ দেওয়া হলেও সিলেট তেমন কোনো উদ্যোগ চোখে পড়েনি। তবে সিলেট জেলা প্রশাসনের দায়িত্বরতরা বলছেন সরকারের দেওয়া ১১ দফা নির্দেশনা যথাযথভাবে বাস্তবায়নে প্রশাসনের মোবাইল টিম কাজ করছে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল হাসান বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে আমরা কাজ করছি। আজ (গতকাল) সারা দিন জেলা প্রশাসনের মোবাইল টিম বিধিনিষেধ কার্যকর করতে কাজ করেছে। করোনা মোকাবিলায় বিধিনিষেধ যাঁরা মানবেন না তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

সিলেট স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, কেউ বিধিনিষেধ মানতে চান না। মানুষ অতি সাহসী হয়ে গেছে। করোনা মোকাবিলায় বিধিনিষেধ মানার কোনো বিকল্প নেই।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সার সংকট নিরসনে ৩৩ ডিলারকে ৩ দিনের সময়সীমা

    ভবন থাকলেও আসবাব সংকটে টিনশেডে পাঠ

    চৌগাছায় সারের কৃত্রিম সংকট

    বিদেশে বসে চাঁদাবাজি সন্ত্রাসী সাজ্জাদের

    পানির অভাবে কালচে পাট, লোকসানে চাষি

    খুবিতে ‘হাওয়া’ টিম আসছে আজ

    অলিম্পিকেও নিষিদ্ধ হতে পারে ভারত

    ভোলার গ্যাস নিয়ে বড় পরিকল্পনায় সরকার

    দাম্মামে ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ আ. লীগের শোক দিবস পালিত 

    কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যানের চাপায় স্বেচ্ছাসেবক দল নেতার মৃত্যু

    রুশদির ওপর হামলায় ইমরান খানের নিন্দা

    ফেসবুক লাইভে এসে নিজের দুর্দশার কথা জানালেন এক প্রবাসী