Alexa
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

যাত্রীর ছদ্মবেশে গাড়ি নিয়ে শিকারের অপেক্ষায় থাকে দুর্বৃত্তরা

পথে একা, পরিণতি ভয়ংকর

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০:২৭

অলংকার মোড় থেকে গ্রেপ্তার চক্রের ছয় সদস্য। ছবি: আজকের পত্রিকা কোনো গণপরিবহনে তাঁদের বসে থাকা দেখে সরল বিশ্বাসে যাত্রী মনে করবেন অন্যরা। চালকের হাঁকডাকে তো সন্দেহের অবকাশই থাকে না। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে অপরাধ করছে একটি চক্র। তাঁরা গাড়ির ভেতরে যাত্রীর ছদ্মবেশে বসে থাকেন। কেউ ওই গাড়িতে উঠলে তাঁর জন্য অপেক্ষা করে ভয়ংকর পরিণতি। মারধর করে তাঁর সবকিছু কেড়ে নেওয়া হয়। পরে আহতাবস্থায় সুবিধাজনক জায়গায় ওই যাত্রীকে গাড়ি থেকে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় চক্রটির সদস্যরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ লাইনে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন ঘটনায় জড়িত দুর্ধর্ষ ডাকাত দলের ৬ জনকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)। গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর চক্রটির হাতে পড়ে মো. হোসেন নামে এক দুবাইপ্রবাসী যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে চক্রটির সন্ধান পায় পুলিশ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন বরগুনা সদরের পরীরখালের মো. শাহ আলম আকন (৩২), একই উপজেলার মো. মিজানুর রহমান ওরফে চান মিয়া (৫৩), ওই জেলার পাথরঘাটার ঘুটাবাছার মো. আবুল কালাম (৪৭), ছোট তালতলীর ভাইজোড় এলাকার মো. আল আমিন (২৯), বরিশালের মুলাদীর পূর্ব চরপদ্মার মো. জাকির হোসেন ওরফে সাঈদ (৩৬) এবং ঢাকার কেরানীগঞ্জের মো. নাহিদুল ইসলাম ওরফে হারুন।

সংবাদ সম্মেলনে সিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) মো. শামসুল আলম বলেন, গত বুধবার রাত পৌনে ৯টার দিকে নগরীর অলংকার মোড় থেকে যৌথ অভিযানে তাঁদের গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ, পাহাড়তলী ও আকবরশাহ থানা-পুলিশ। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে একটি মাইক্রোবাস, হাতুড়ি, স্ক্রু-ড্রাইভার, প্লায়ার্স, ২টি টিপ ছোরা, ১০টি মোবাইল ফোন সেট জব্দ করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জের বাড়িতে যাওয়ার জন্য গত ১৯ ডিসেম্বর অলংকার মোড়ের বাসস্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন দুবাইপ্রবাসী মো. হোসেন। এ সময় একটি মাইক্রোবাস তাঁর সামনে এসে দাঁড়ায়। মাইক্রোবাসের চালক তাঁকে ১০০ টাকা ভাড়ায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বললে তিনি সরল বিশ্বাসে ওঠেন। কিছু দূর যাওয়ার পরে মাইক্রোবাসে থাকা চার ব্যক্তি তাঁর ওপর নির্যাতন চালায়। এ সময় মো. হোসেনের কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা, দুটি স্বর্ণের আংটি, মোবাইল ফোন ও পাসপোর্ট ছিনিয়ে নেয়।

পরে চট্টগ্রাম-ঢাকা মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার উত্তর বেতিয়ারায় তাঁকে গাড়ি থেকে ফেলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। স্থানীয় বাসিন্দারা হোসেনকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে পাঠায়। পরদিন ২০ সন্ধ্যায় সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    দোয়া সফলতার হাতিয়ার

    শ্রীবরদীতে সারের কৃত্রিম সংকট, বেশি দামে বিক্রি

    ফ্যাশনেবল ফিউশন

    নিরাপদ অভিবাসন নিয়ে কর্মশালা

    ঘাটাইলে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ৩ অবৈধ ইটভাটা

    ঘর সামলাচ্ছেন মোশাররফ, অফিস তানজিন তিশা

    মনোজ-ফারিয়ার দ্বন্দ্ব

    অতীশ দীপঙ্করের নতুন উপাচার্য জাহাঙ্গীর আলম

    ভবদহে বোরো অনিশ্চিত

    প্রতিযোগিতা ইস্যুতে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে মার্কিন কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎ

    ভিজিডি দুস্থ নারীদের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে: ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা