Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

ট্রেতে ধানের চারা

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১১:৫৫

খানসামায় ট্রেতে ধানের চারা উৎপাদন। ছবি: আজকের পত্রিকা প্রথমবারের মতো দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় আধুনিক পদ্ধতিতে ট্রেতে ধানের চারা উৎপাদন শুরু হয়েছে। গত বুধবার উপজেলার পূর্ব গোবিন্দপুর এলাকায় অটোমেটিক রাইস সিটলিং প্লান্টারের চারা উৎপাদন উদ্বোধন করেন কৃষি কর্মকর্তা বাসুদেব রায়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার।

কৃষি অফিস সূত্র জানায়, কৃষি বিভাগের সহায়তায় চলতি মৌসুমে পূর্ব গোবিন্দপুর এলাকায় ৫০ একর জমিতে ব্রি-ধান ৮৯ জাতের চাষ করা হবে। এ কারণে মাঠে ২ হাজার ২০০ ট্রেতে বীজ বপন করা হয়েছে। এ বছর ট্রেতে বীজতলা, যন্ত্রের মাধ্যমে চারা রোপণ, কম্বাইন্ড হারভেস্টারের মাধ্যমে ধান কাটা ও মাড়াই হবে। অর্থাৎ আধুনিক পদ্ধতিতেই কৃষিকাজ সম্পন্ন হবে। এ পদ্ধতিতে চাষিরা কম খরচে সহজে ধান ঘরে তুলতে পারবেন। আধুনিক পদ্ধতিতে এই প্রথমবার চারা তৈরির কাজ সার্বিক তত্ত্বাবধান করছে কৃষি বিভাগ।

অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার আজকের পত্রিকাকে জানান, সনাতন পদ্ধতিতে ৩৫-৪০ দিনের চারা রোপণ করতে হয়। আর ট্রেতে পরিমাণমতো জৈব সার ব্যবহার করে বীজতলা তৈরির ২৫-৩০ দিন পর চারা মাদুরের মতো করে তোলা যায়। এরপর রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে মাঠে রোপণ করা হয়। এই পদ্ধতিতে দুজন শ্রমিক একটি রোপণ মেশিন দিয়ে দিনে প্রায় ১৫ বিঘা জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে পারেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ বাসুদেব রায় জানান, সহজে ফসল উৎপাদনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে এটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ ছাড়া এ কার্যক্রমে সহজে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃষকদের অধিক ফলন কম খরচে ঘরে তোলা সম্ভব।

ট্রে পদ্ধতিতে চারা কুয়াশা বা শৈত্যপ্রবাহে নষ্ট হয় না, বরং তা সুস্থ ও সবল হয়। বর্তমানে জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে যেভাবে ফসলি জমি কমতে শুরু করেছে, এ অবস্থায় ট্রে পদ্ধতি সময়োপযোগী। এই আধুনিক প্রযুক্তি প্রসারে ট্রেতে চারা উৎপাদনের ফলে ধানের উৎপাদন খরচ কম, শ্রমিকসংকট দূর এবং সময় সাশ্রয় হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সন্ত্রাস-নাশকতা বড় গুনাহের কাজ

    প্রশাসনের দিকে অভিযোগের তির নৌকার ১০ প্রার্থীর

    আইভীতেই আস্থা অটুট

    সৌন্দর্য উপভোগ করতে এসে ফসলের ক্ষতি

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত