Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

জীবিকার লড়াইয়ে সফল, স্বপ্ন ছেলের মাথা গোঁজার ঠাঁই

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১১:২২

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা গেটের সামনে তাসলিমা খাতুনের দোকান। ছবিটি গত সোমবার তোলা। আজকের পত্রিকা  বগুড়ার দুপচাঁচিয়া সদরের চৌধুরীপাড়ার তয়েজ উদ্দিনের ছোট মেয়ে তাসলিমা খাতুন। সাত বছরের সংসারে এক ছেলেসন্তান রেখে স্বামী নিরুদ্দেশ হন। স্কুলপড়ুয়া ছেলে তোহাকে নিয়ে তাসলিমা বাবার কাছেই থাকেন। একমাত্র ছেলেকে মানুষের মতো মানুষ করতে এবং ছেলের মাথা গোঁজার ঠাঁইয়ের জন্য প্রতিনিয়ত স্বপ্ন দেখছেন ছোট্ট একটা ঘরের।

জন্মগতভাবে প্রতিবন্ধী না হলেও জন্মের এক বছর পর পলিওতে আক্রান্ত হন তাসলিমা খাতুন। ছয় ভাইবোনের মধ্যে তাসলিমা পঞ্চম। অভাব-অনটনের কারণে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করেছেন।

১৪ মাস আগে তৎকালীন দুপচাঁচিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এসএম জাকির হোসেনের কাছে আবেদন করে উপজেলা অফিসের গেটে ছোট্ট একটি দোকানঘরের স্থাপনের অনুমতি পেয়েছেন। পাশাপাশি বিলবিহীন বিদ্যুতেরও ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এরপর শুরু হয় তাসলিমার নতুন করে বাঁচার সংগ্রাম। এনজিওকর্মী মোতাহারুল ইসলামের সার্বিক সহযোগিতায় দোকানঘর কিনে এবং মালপত্র নিয়ে শুরু করেন ‘তোহা মুদি স্টোর’। প্রতিদিন যা বিক্রি হয়, সেখান থেকেই চলে তাসলিমার ছেলের পড়ালেখার খরচ। অন্যদিকে বাবার পরিবারে আর্থিক সহযোগিতাও দেন। আগে ব্যবহার করতেন হুইলচেয়ার। এরপর টাকা জমিয়ে কেনেন চার্জার মোটরসাইকেল। তা দিয়েই ছেলেকে স্কুলে আনা-নেওয়া, দোকানের মালামাল এবং বাজারসহ সব কাজ। এভাবে সবকিছু সম্পূর্ণ করছেন তিনি।

তাসলিমা খাতুন আজকের পত্রিকাকে জানান, তিনি সমাজের বোঝা হয়ে নয়, স্বাভাবিক মানুষের মতোই বাঁচতে চান। খাদ্য, পোশাকের জন্য কোথাও যেতে না হলেও প্রয়োজন অনুভব করেন একটি ছোট্ট বাড়ির। একমাত্র ছেলেকে মানুষের মতো মানুষ করে ও ছেলের মাথা গোঁজার ঠাঁইয়ের জন্য প্রতিনিয়ত স্বপ্ন দেখছেন। বসবাসের জন্য উপযুক্ত একটি ঘর দরকার, তাই বর্তমান দুপচাঁচিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু তাহিরের কাছে আবেদন করেছেন। তিনি একটি ঘরের ব্যবস্থা করে দেবেন বলেছেন।

এ বিষয়ে ইউএনও আবু তাহির আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘তাসলিমার জীবন-সংগ্রামের উন্নয়নের অংশ আমরাও হতে চাই। সদরের নিকটে কোথাও তাসলিমার জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহারের একটি ঘরের ব্যবস্থা করব।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সন্ত্রাস-নাশকতা বড় গুনাহের কাজ

    প্রশাসনের দিকে অভিযোগের তির নৌকার ১০ প্রার্থীর

    আইভীতেই আস্থা অটুট

    সৌন্দর্য উপভোগ করতে এসে ফসলের ক্ষতি

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত