Alexa
শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

পৌরসভা নির্বাচন

বাগাতিপাড়ায় আতঙ্ক ছড়াচ্ছে বহিরাগতরা

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১১:০৬

প্রতীকী ছবি নাটোরের বাগাতিপাড়া পৌরসভা নির্বাচন ১৬ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচার শুরু হলেও এখন তা শঙ্কায় পরিণত হয়েছে। নির্বাচনী এলাকায় বহিরাগতদের উপস্থিতি ও অবস্থান ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নিত করছে।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা খাতুনের পক্ষে বহিরাগত লোকজন এসে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর সমর্থক ও ভোটারদের হুমকি-ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বাগাতিপাড়া পৌর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী তিন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা খাতুনের পক্ষে রাজশাহীর আড়ানী, নাটোরের বনপাড়া, আব্দুলপুরসহ আশপাশের এলাকা থেকে প্রতিদিন মোটরসাইকেলে কয়েক শ বহিরাগত প্রচারের নামে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকা প্রতীকের বাইরে ভোট না দিতে হুমকি দিচ্ছে। এসব বহিরাগত দলে দলে বিভক্ত হয়ে প্রতিটি ওয়ার্ডে ভোটারদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। প্রশাসন ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতের আশ্বাস দিলেও বহিরাগতদের উপস্থিতি শঙ্কা বাড়াচ্ছে প্রতিনিয়ত।

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ময়মুর সুলতান (নারকেলগাছ) বলেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা খাতুন দলের কাউকে পাশে না পেয়ে বহিরাগতদের দিয়ে প্রচার চালাচ্ছেন। সেই সঙ্গে তাঁর কর্মীদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। এসব বহিরাগত সশস্ত্র অবস্থায় প্রকাশ্যে পৌর এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে।

ময়মুর সুলতান আরও বলেন, ‘সম্প্রতি মাছিমপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার রহমান ও সোনাপাতিল মহল্লার আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমিন আমার সমর্থকদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিয়ে বলেছেন যে নৌকায় ভোট না দিলে যেন তাঁরা কেন্দ্রে না যান।’

অপর স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী শরিফুল ইসলাম লেলিন বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নওশেরা এলাকায় তাঁর পক্ষে কয়েকজন নারী বাড়িতে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করার সময় বহিরাগত একদল যুবক তাঁদের ধাওয়া করে। পরে তাঁরা ওই এলাকা ছেড়ে চলে আসতে বাধ্য হন। এমন ঘটনা প্রতিদিনই কোনো না-কোনো এলাকায় ঘটছে।

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী জামাল হোসেন বলেন, তাঁরা স্বতন্ত্র তিন মেয়র প্রার্থী পরস্পরের মধ্যে সদ্ভাব বজায় রাখলেও নৌকার পক্ষে বহিরাগত লোকজন পৌর এলাকায় ঢুকছেন প্রতিদিন। ১৬ বছর পর শান্তিপূর্ণ ভোট চান পৌরবাসী। প্রতিদিন শত শত বহিরাগতের মোটরসাইকেল মহড়া দেখে ভোটাররা আতঙ্কিত। পুলিশ এসে এক এলাকার মহড়া বন্ধ করলে আরেক এলাকায় তারা মহড়া দেয়।

অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহিদা খাতুন বলেন, তিনি আচরণবিধি মেনেই প্রতিদিন প্রচার চালান। তাই বহিরাগত লোক প্রয়োজন হয় না। যাঁরা এমন অভিযোগ করছেন, তাঁরা প্রশাসনকে ভুল বুঝিয়ে নির্বাচনী পরিবেশ নষ্টের চেষ্টা করছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার রহমান বলেন, যিনি এমন অভিযোগ করেছেন, তিনি দলের বিদ্রোহী প্রার্থী। বাগাতিপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোটাররা নৌকাকে বিজয়ী করতে ভোটের দিনের অপেক্ষা করছেন। তাই হুমকি দিয়ে কারও ভোট আদায় বা কেন্দ্রে না যেতে বলার অভিযোগ একেবারেই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

পৌর নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ বলেন, মেয়র প্রার্থীরা বহিরাগতদের বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি। তবে কাউন্সিলর প্রার্থীদের বেশ কিছু অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ পেলেই নির্বাচন কমিশন সত্যতা যাচাই করে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিচ্ছে।

জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে বহিরাগতদের তৎপরতা রুখতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনের ধারাবাহিকতা পৌরসভাতেও বজায় থাকবে।

উল্লেখ্য, আগামী রোববার, ১৬ জানুয়ারি বাগাতিপাড়া পৌরসভায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    সার সংকট নিরসনে ৩৩ ডিলারকে ৩ দিনের সময়সীমা

    ভবন থাকলেও আসবাব সংকটে টিনশেডে পাঠ

    চৌগাছায় সারের কৃত্রিম সংকট

    বিদেশে বসে চাঁদাবাজি সন্ত্রাসী সাজ্জাদের

    তিনটি পরিকল্পিত হত্যা প্রমাণ পুলিশের হাতে

    খুবিতে ‘হাওয়া’ টিম আসছে আজ

    অলিম্পিকেও নিষিদ্ধ হতে পারে ভারত

    ভোলার গ্যাস নিয়ে বড় পরিকল্পনায় সরকার

    দাম্মামে ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ আ. লীগের শোক দিবস পালিত 

    কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যানের চাপায় স্বেচ্ছাসেবক দল নেতার মৃত্যু

    রুশদির ওপর হামলায় ইমরান খানের নিন্দা

    ফেসবুক লাইভে এসে নিজের দুর্দশার কথা জানালেন এক প্রবাসী