Alexa
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২

সেকশন

epaper
 

আমি কোনো ট্যাক্স বাড়াইনি: আইভী

জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন। সবার দৃষ্টি এখন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারের দিকে সীমাবদ্ধ। আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে কথা বলেছেন সাবিত আল হাসান

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:০৩

তিন দিন পরেই ভোট। প্রচারে ব্যস্ত প্রার্থীরা। গতকাল নগরীর ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে গণসংযোগে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী। ছবি: প্রীতম মাহমুদ আজকের পত্রিকা: কেমন আছেন?
সেলিনা হায়াৎ আইভী: নির্বাচনী ব্যস্ততা, বুঝতেই তো পারছেন। তারপরও আলহামদুলিল্লাহ, ভালো আছি।

প্রশ্ন: ২০১৬ সালের নির্বাচনী ইশতেহারে নগরে সবুজায়নের কথা বলেছিলেন। এবারও সেই একই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন?
আইভী: নারায়ণগঞ্জ অত্যন্ত ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা। ছোট শহরে লাখ লাখ মানুষের বসবাস। সবুজায়ন ছাড়া এই অঞ্চলকে স্বাস্থ্যসম্মত করা কঠিন হবে। তাই এরই মধ্যে শেখ রাসেল পার্ক, বাবুরাইল লেক, বন্দর, সিদ্ধিরগঞ্জে বিভিন্ন স্থানে গাছ লাগিয়ে সবুজায়ন করেছি। খালের দুপাশে, সড়কের দুপাশে গাছ লাগানো হয়েছে। এমনকি কবরস্থানেও পর্যাপ্ত গাছ লাগিয়েছি। পাশাপাশি পুকুর, খাল উদ্ধার করে তা পরিষ্কার করায় জোর দিয়েছি।

প্রশ্ন: ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করতে গিয়ে আপনি নিজেও হামলার শিকার হয়েছেন। এ ঘটনা বহুদূর গড়ালেও ফুটপাত হকারমুক্ত হয়নি। এ ব্যাপারে কী বলবেন?
আইভী: ওই ঘটনার দিন আমি হকারদের উচ্ছেদ করতে সেখানে যাইনি। মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে ফুটপাত দিয়ে চলাফেরা করতে পারে সে জন্য হকারদের পুনর্বাসনের জন্য নামের তালিকা করে দোকান বরাদ্দ দিয়েছি। চেয়েছি তারা সেখানে যাক। তারপরও ফুটপাত হকারমুক্ত করতে পারিনি। এ জন্য প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় প্রয়োজন। তা করা গেলে হকার সমস্যার সমাধান সম্ভব।

প্রশ্ন: শহরের অন্যতম বড় সমস্যা এখন ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক। যদিও করোনার আগে এসব যানবাহন শহরে ঢুকতে পারত না। কিন্তু এখন পুরো শহর এদের দখলে।
আইভী: করোনার সময় মানবিক বিবেচনায় তাদের ছাড় দেওয়া হয়েছিল। করোনা-নির্বাচন সব মিলিয়ে এখন একটু সমস্যা তৈরি হয়েছে। তবে সিটি করপোরেশনের কর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া আছে, এসব যানবাহন যেন শহরে প্রবেশ না করে। নির্বাচনের পর এসব যানবাহন কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

প্রশ্ন: শহরের যানজট কমাতে বাস ও ট্রাকের জন্য আলাদা টার্মিনাল নির্মাণের কথা বলেছিলেন। তাঁর অগ্রগতি কত দূর?
আইভী: টার্মিনালের জন্য সম্ভাব্য জায়গা নির্ধারণ করে তা অধিগ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলেই নির্মাণকাজ শুরু হবে। তবে টার্মিনালের জায়গা কোথায় প্রস্তাব করা হয়েছে, তা এখনই বলতে চাচ্ছি না।

প্রশ্ন: ২০১৮ সালে অনুমোদন পাওয়া কদমরসুল সেতুর কাজ শুরু হবে কবে?
আইভী: প্রায় ৫০০ কোটি টাকার ব্যয়ে এ সেতু নির্মাণের কাজ পেয়েছে কোরীয় একটি প্রতিষ্ঠান। চার-পাঁচ মাসের মধ্যে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। এরপর দুই বছরের মধ্যে সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে বলে আশা করছি।

প্রশ্ন: মণ্ডলপাড়া ব্রিজের কাজ শেষ হবে কবে?
আইভী: অনলাইন টেন্ডারের মাধ্যমে যে প্রতিষ্ঠান এই ব্রিজ নির্মাণের কাজ পেয়েছে, তারা অত্যন্ত ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। এ নিয়ে বিভিন্ন সংস্থা থেকে তাদের চাপ দেওয়া হয়েছে। খুব দ্রুতই ব্রিজটির কাজ শেষে হবে।

প্রশ্ন: সিটি করপোরেশনের অর্ধসমাপ্ত প্রকল্প এবং কাজ শুরুর পর বাজেট বৃদ্ধি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।
আইভী: কোনো প্রকল্পের বাজেট বাড়ানো হয় না? যদি সেটা দু-একটি ক্ষেত্রে হয়েও থাকে, তা চাহিদার ভিত্তিতেই হয়।

প্রশ্ন: চাষাঢ়ায় ফুটওভারব্রিজ নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের। এ ব্যাপারে সিটি করপোরেশন কোনো উদ্যোগ নেয়নি কেন?
আইভী: চাষাঢ়া থেকে নবাব সলিমুল্লাহ সড়ক পর্যন্ত এলাকা নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা খানপুরে পোর্ট নির্মাণের কাজ করছে। তাই এখানে ফুটওভারব্রিজ বা কোনো স্থাপনা নির্মাণ করার সুযোগ নেই।

প্রশ্ন: সিটি করপোরেশনের ট্যাক্সের হার নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে। নির্বাচনী প্রচারে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরাও ট্যাক্স বৃদ্ধির জন্য আপনাকে অভিযুক্ত করছেন। এ ব্যাপারে আপনার বক্তব্য কী?
আইভী: আমি কোনো ট্যাক্স বাড়াইনি। তাঁরা আমার বিরুদ্ধে আর কোনো ইস্যু না পেয়ে ট্যাক্স নিয়ে কথা বলছেন। অথচ করোনাকালে অনেকেই ট্যাক্স দিতে পারেননি। কাউকে জোর করিনি। ট্যাক্স নিয়ে সিটি করপোরেশনে জোর-জবরদস্তি নেই। আবার কেউ যদি একবারে পুরো ট্যাক্স পরিশোধ করতে চায় কিংবা কারও কাছে ট্যাক্স বেশি মনে হলে আবেদন করতে পারেন। সিটি করপোরেশনে এ-সংক্রান্ত একটি সেকশন প্রস্তুত রয়েছে, নাগরিকের আর্থিক সংগতি বিবেচনা করে ট্যাক্স কমানোর সুযোগ রাখা হয়েছে।

আ.প: এমন ব্যস্ততার মধ্যে সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।
আইভী: আপনাকেও ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন:

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পাসপোর্ট পেতে ভোগান্তি কবে শেষ হবে

    শত মিটারের যত ভোগান্তি

    যমুনায় বাড়ছে পানি, তলিয়ে যাচ্ছে নিম্নাঞ্চলের ফসলি জমি

    নারায়ণগঞ্জের নতুন আতঙ্ক কিশোর গ্যাং

    অপরিকল্পিত কালভার্ট নির্মাণ পানিপ্রবাহ বন্ধের আশঙ্কা

    ‘মাদক বিক্রি করতে হবে নইলে চাঁদা দিতে হবে’

    ১৫০ হলো না লিটনের, প্রথম বলেই শেষ মোসাদ্দেক

    যত্নে থাকুক চুল

    মালদিনি-জাদুতে এসি মিলানের সিংহাসনে ফেরা

    যে ব্যথায় বন্ধু শুধু নিজে

    পদ্মায় জেলের জালে আটকা পড়েছে ২০ কেজির পাঙাশ মাছ

    পণ্য নিয়ে জাহাজ আটকা