পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

পাকিস্তান প্রথমে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করবে না বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সোমবার লাহোরে শিখ সম্প্রদায়ের সদস্যদের উদ্দেশে বক্তৃতাকালে এ মন্তব্য করেন ইমরান।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ভারতশাসিত জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা বাতিল করে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। একই সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরের রাজ্যের মর্যাদাও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরকে দুই ভাগ করে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করা হয়েছে। এ নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যে ইমরান পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ে মন্তব্য করলেন।

ইমরান বলেন, ভারত ও পাকিস্তান উভয়ে পারমাণবিক অস্ত্রসমৃদ্ধ দেশ। যদি দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা বাড়ে, তাহলে বিশ্ব বিপদে পড়তে পারে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতির বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ইমরান বলেছেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে কখনো প্রথম আঘাত (পারমাণবিক অস্ত্র) আসবে না।’

গত মাসে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের নীতি বদলের ইঙ্গিত দেন। তিনি বলেন, প্রথমে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার না করার নীতি পরিবর্তনের অধিকার ভারত রাখে।

প্রথমে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার না করার নীতি দৃঢ়ভাবে মেনে চলছে ভারত। এখন দেশটির সরকার বলছে, ভবিষ্যতে কী হবে, তা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের উদ্বেগের প্রেক্ষাপটে ভারত বলছে, এটি তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়।