নিহত যুবক

মেহেরপুর সদর উপজেলায় গুলিতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। ওই যুবকের বিরুদ্ধে ১২টির মতো মামলা আছে বলে দাবি করছে পুলিশ। তার নাম হামিদুল ইসলাম।

মাদক কারবারিদের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে তিনি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।

সোমবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে উপজেলার গোভিপুর গ্রামের মাথাভাঙ্গা মোড় নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি ও ১২ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়।

নিহত হামিদুল সদর উপজেলার বুড়িপোতা গ্রামের আরজ আলীর ছেলে। তার নামে সদর থানায় এক ডজন মামলা রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ দারা খান জানান, দুই দল মাদক কারবারির মধ্য গোলাগুলি হচ্ছে এমন খবরের ভিত্তিতে রাত তিনটার দিকে সদর থানা পুলিশ গোভিপুর গ্রামের মাথাভাঙ্গা মোড়ে যায়। সেখানে গিয়ে হামিদুলের লাশ দেখতে পায় তারা। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়।

মাদক ভাগাভাগি ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে হামিদুল মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস