৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ছিনতাইকারী ধরল পুলিশ

সাতক্ষীরা শহরের গণমূখী মাঠের পাশের রাস্তায় বিকেলে হাঁটছিল তিন বোন ও চাচাতো ভাই সৌরভ। আকষ্মিক মোটর সাইকেলযোগে এসে দুই যুবক সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে গতিরোধ করে ছবি তুলতে শুরু করে।

একটি মেয়ের হাতের আংকটিও খুলে নয় তারা। এরপর ১৫ হাজার টাকা দাবি করে। মেয়েদের সঙ্গে থাকা যুবক তাৎক্ষণিক ৯৯৯-এ ফোন করে ঘটনাটি জানালে পুলিশ সাংবাদিক পরিচয়দানকারী দুই যুবককে আটক করে।

ছিনতাইকারী কথিত দুই সাংবাদিক শহরের কাটিয়া এলাকার বিল্লাল হোসেনের ছেলে আলামিন প্রমি ও একই এলাকার সামসুর রহমানের ছেলে বিলাল হোসেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মেয়ে তিনজন তারা আপন বোন। আর সৌরভ নামের ছেলেটি আপন চাচাতো ভাই। সাতক্ষীরার কালিগজ্ঞ উপজেলার বাসিন্দা তারা। শহরে ম্যাসে থেকে লেখাপড়া করে। বিকেলে হাটতে বের হলে দুই যুবক তাদের আটকে ছবি তুলতে থাকে ও ১৫ হাজার টাকা দাবি করে। এক পর্যায়ে একটি মেয়ের হাতের একটি আংকটি খুলে নেয়।

ওসি আরও বলেন, ঘটনাটি তাৎক্ষণিক সঙ্গে থাকা যুবক সৌরভ ৯৯৯-এ কল দিয়ে অভিযোগ জানালে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে কথিত দুই ছিনতাইকারী কথিত সাংবাদিককে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আটক দুই যুবকের কাছে দুই পত্রিকার আইডি কার্ড পাওয়া গেছে।

বৈশাখী/সাতক্ষীরা