আদালত ভবন। ছবি: সংগৃহীত

৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে হবে নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা: হাইকোর্ট

নারী ও শিশু ধর্ষণ এবং হত্যা মামলার বিচার ৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের ডিভিশন বেঞ্চ ৩ টি ধর্ষণ মামলার ৪ আসামির জামিন শুনানি শেষে এই নির্দেশ দেন।

১৮ জুলাই বৃহস্পতিবার আদালত বলেন শিশু ধর্ষণ হচ্ছে আর বিচার বিলম্বিত হচ্ছে, যা খুবই দুঃখজনক। এ বিষয়ে ৭ দফা নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ ও হত্যা মামলার বিচার কাজ ১৮০ দিনের মধ্যে সম্পন্ন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে এধরনের বেশ কিছু মামলা বছরের পর বছর ধরে বিচারধীন রয়েছে, যা সম্প্রতি হাইকোর্টের নজরে আসে।

বৃহস্পতিবার এমন ৩ টি মামলার ৪ আসামির জামিন শুনানিতে আদালত বলেন, শিশুরা প্রতিনিয়ত ধর্ষণের শিকার হচ্ছে, অথচ বিচার প্রক্রিয়া ক্রমান্বয়ে বিলম্বিত হচ্ছে। যা খুবই দুঃখজনক।

এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য আদালত ৭ দফা নির্দেশনা দেন। যেখানে সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের বিচারকদের সব ধরনের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়। শুনানি শুরুর পর বিরতি ছাড়া মামলা পরিচালনা করতে হবে। সাক্ষী উপস্থিত ও তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে মনিটরিং কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়। হাইকোর্ট আশা করেন, সরকার শিগগির সাক্ষী সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করবে।

এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নে স্বরাষ্ট্র ও আইন মন্ত্রণালয়ের দুইজন করে সচিব ও স সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে আদেশের অনুলিপি পাঠাতে বলা হয়েছে।

আজকের পত্রিকা/কেএফ