অশ্লীলতার বিরুদ্ধে তার চ্যানেল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে অভাবনীয় প্রতিবাদ করে অনলাইন ব্যবহারকারীরা। ছবি: সংগৃহীত

সবসময় আলোচনা সমালোচনার মধ্যেই থাকেন ইউটিউবার সালমান মুক্তাদির। ইউটিউব দিয়ে পরিচিতি পেলেও বিজ্ঞাপন, নাটকেও অভিনয় করেছেন তিনি। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক খোলামেলা ছবি, ভিডিও দিয়ে যেন আলোচনার মধ্যে থাকতেই বেশি পছন্দ সালমানের। তা আবারও প্রমাণ পেল সম্প্রতি একটি ভিডিওতে।

‘সালমান দ্য ব্রাউনফিশ’ নামে ইউটিউব চ্যানেল থেকে ‘অভদ্র প্রেম’ নামে একটি গানের ভিডিও টিজার ছাড়েন সালমান। এরপর থেকেই শুরু হয় আলোচনা সমালোচনার। অশ্লীলতার তীর ছুঁড়ে দেয় তার দিকে। ভিডিওর নিচে অকথ্য ভাষায় কমেন্ট করেন সাবক্রাইবাররা। এরপর সালমানকে নিয়ে ইউটিউবার তাহসীনেশন করেন রোস্টিং। সেখানে তিনি অনলাইন ব্যবহারকারীদের অনুরোধ করেন সালমানকে আনসাবস্ক্রাইব করতে। এরপর থেকে ক্রমশ মুখ ফিরিয়ে নেয় ইউটিউব ভক্তরা।

আর এই অশ্লীলতার বিরুদ্ধে তার চ্যানেল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে অভাবনীয় প্রতিবাদ করে অনলাইন ব্যবহারকারীরা। শুধু তাই নয় একের পর এক তার চ্যানেল আনসাবস্ক্রাইব করে এবং তার প্রকাশিত ভিডিওতে ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছে আনলাইকের সংখ্যা।

তিন দিন আগেও সালমান দ্য ব্রাউনফিশ ইউটিউব চ্যানেলে ছিল ১২ লাখ ৬ হাজার সাবস্ক্রাইবার। কিন্তু এখন তার চ্যানেলে দেখা যাচ্ছে প্রায় দুই লাখ আনসাবস্ক্রাইব করে রয়েছে ১০ লাখ ৯৭ হাজার।অনেকে নিজেরাই শুধু চ্যানেলটি থেকে আনসাবস্ক্রাইব হচ্ছেন না, বরং সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্যকেও উদ্বুদ্ধ করছেন।