উদ্ধার হওয়া ছাত্রের লাশ।

দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার মোহনপুর ব্রীজের নিচে আত্রাই নদীতে ১৬ ঘণ্টা পর নদীতে ভেসে উঠল নিখোঁজ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তাসফিক আহম্মেদের (২১) লাশ।

বুধবার সকাল ৮টায় আত্রাই নদীর ব্রিজের নীচে রাবার ড্যামে থেকে ২০০ গজ দুরে তার লাশ ভেসে উঠে।

স্থানীয় জনগণ দেখতে পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে জানালে তারা লাশটি উদ্ধার করে। ২০ জুন মঙ্গলবার বিকেলে সহপাঠীদের সঙ্গে রাবার ড্যামে গোসল করতে যায় তাসফিক। নিহত তাসফিক আহম্মেদ হাবিপ্রবির পরিসংখ্যান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। তার বাড়ী চট্রগাম জেলায়।

এ বিষয়ে ঘটনাস্থল থেকে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আব্দুল মান্নান জানান, হাবিপ্রবির ৯ জন ছাত্র প্রচন্ড গরমের কারণে মোহনপুর আত্রাই নদীর ব্রিজের নীচে রাবার ড্যামে গোসল করতে যায়। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার সময় তারা গোসল করতে নামে। এরপর তারা তাদের একজন সহপাঠিকে খুজে পায়নি। পরে তারা ঘটনাটি জানালে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে বিকাল সাড়ে ৫ টায় পৌছে উদ্ধার অভিযান চালায়। কিন্তু পানি বেশী হওয়ায় তারা নিখোঁজ তাসফিক আহম্মদকে উদ্ধার করতে পারেনি।

পরে রংপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। সেখান থেকে ডুবুরিরা এসে পুনরায় উদ্ধার কাজ শুরু করে। কিন্তু তারাও লাশ উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়। বুধবার সকালে তার লাশ নদীতে ভেসে উঠে । চিরিরবন্দর অফিসার ইনচার্জ মো.হারেসুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মোহাম্মদ মানিক হোসেন/চিরিরবন্দর