বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ছবি : সংগৃহীত

মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ভুয়া জন্মদিন পালন ও যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার অভিযোগে পিছিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি। ১৩ জুন দিন ধার্য করেছেন আদালত। ২৪ এপ্রিল বুধবার  পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতের বিচারক ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূর আসামি পক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে এ আদেশ দেন।

খালেদা জিয়া অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে থাকায় অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছানোর জন্য আদালতের কাছে আবেদন করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী হান্নান ভূইয়া। তার আগে ৩১ জুলাই এই দুই মামলায় ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত থেকে জামিন পান সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।

প্রসঙ্গত, যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার অবিযোগে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকার মহানগর হাকিমের আদালতে বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এছাড়া ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট মিথ্যা তথ্য দিয়ে ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম  খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ঢাকা মহানগর হাকিমের আদালতে আরেকটি মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলায় ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

আজকের পত্রিকা/আ.স্ব/