১২ জুন বিশ্ব শিশুশ্রম দিবস। ছবি : সংগৃহীত

‘শিশুশ্রম নয়, শিশুর জীবন হোক স্বপ্নময়’ শ্লোগানকে সামনে রেখে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ১২ জুন বুধবার বাংলাদেশেও পালিত হবে বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস। আন্ত:র্জাতিক শ্রম সংস্থা-আইএলও এবারের প্রতিপাদ্য শ্লোগান নির্ধারণ করেছে।

দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বানী দেবেন। মন্ত্রণালয়, আইএলও ঢাকা অফিস, বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমে আলোচনা অনুষ্ঠান, বিশেষ প্রকাশনা, পোষ্টার, লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

১১ জুন মঙ্গলবার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আকরারুল ইসলামের দেয়া এ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

শিশুরা এভাবে শ্রম দিয়ে যাচ্ছে।ছবি: সংগৃহীত

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সরকার শিশুশ্রম নিরসনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সরকার ইতোমধ্যে ৩৮টি কাজকে শিশুদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ কাজ হিসেবে ঘোষণা করেছে। ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসনে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ২শ ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্প গ্রহণ করেছে।

এ প্রকল্পের চতুর্থ পর্যায়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিযুক্ত এক লাখ শিশুকে প্রত্যাহার করে বৃত্তিমূলক ও কারিগরি শিক্ষা প্রদান করা হবে। এর আগে সরকার ২০১০ সালে জাতীয় শিশুশ্রম নিরসন নীতি প্রনয়ন করেছে।

এ নীতি বাস্তবায়নে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা প্রনয়ন এবং শিশুশ্রম নিরসন কার্যক্রম মনিটরিং এর জন্য গঠিত জাতীয় বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কমিটিগুলো কাজ করছে। কোন শ্রমিকের সন্তান যাতে শ্রমে নিযুক্ত না হয় সে জন্য শ্রমিকের সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল হতে শিক্ষা সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের ফলে শিশুশ্রম নিরসনে জনসচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

আজকের পত্রিকা/আর.বি/আ.স্ব